শেরপুরে উলিপুর ফাজিল (স্নাতক) মাদ্রাসায় বই বিতরণ উৎসব অনুষ্ঠিত

মাসুম বিল্লাহ, বগুড়াঃ
নতুন বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে শোভা পাচ্ছে নতুন বই। সারা দেশে আজ বই উৎসব উদযাপনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেওয়া হচ্ছে। করোনার কারণে গত দুই বছর বই উৎসব করা সম্ভব হয়নি। এবছর সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে উৎসব করতে নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার (১জানুয়ারি) বছরের প্রথমদিন বগুড়ার শেরপুর উপজেলার উলিপুর আমেরিয়া সমতুল্যা মহিলা ফাজিল (স্নাতক) মাদ্রাসায় বই বিতরণ করা হয়েছে।

উলিপুর আমেরিয়া সমতুল্যা মহিলা ফাজিল (স্নাতক) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও: আব্দুল হাই এর সভাপতিত্বে ইংরেজী প্রভাষক শাহ জাহান আমিনুলের সঞ্চালনায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ বগুড়া জেলার সভাপতি, শেরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ মোঃ মজিবর রহমান মজনু, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শেরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা সুলতানা, শেরপুর থানা অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান খোন্দকার, শেরপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শেখ নজমুল ইসলাম, শেরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শেরপুর শহর শাখার সাবেক সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোঃ মকবুল হোসেনসহ প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।

এ প্রসঙ্গে উলিপুর আমিরিয়া সমতুল্যা মহিলা ফাজিল (স্নাতক) মাদরাসার অধ্যক্ষ মাও: আব্দুল হাই বলেন, বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং শিক্ষামন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশনানুযায়ী শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিলাম। বই হাতে পেয়ে অজানা কবিতা, গল্প আর জ্ঞান-বিজ্ঞানে নিজেদের শানিত করার অদম্য ইচ্ছায় উচ্ছ্বসিত হয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা মায়ার বাঁধনে নতুন বইগুলো জড়িয়ে নিয়েছেন। শিশুদের হাতে হাতে নতুন বই তুলে দেওয়ার সরকারি এ উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসার দাবীদার।

এর আগে শনিবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হল থেকে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনসহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বর্তমান সরকার ২০১০ শিক্ষাবর্ষ থেকে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ শুরু করে এবং এ পর্যন্ত মোট ৪৩৪ কোটি ৪৫ লাখ ৮০ হাজার ২১১টি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করেছে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) হিসাব অনুযায়ী, সারা দেশে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে ৩৩ কোটি ৯১ লাখ ১২ হাজার ৩০০টি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *