আত্মসমর্পনকৃত বনদস্যু ,জেলে ও মৎস্য জীবীদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ 

শেখ সোহেল,বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি:
সুন্দরবনে দস্যুতায় লিপ্ত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুশিয়ারী দেন কে এম আরিফুল হক পুলিশ সুপার বাগেরহাট। তিনি আরো বলেন যে, ২০১৮ সালের পর থেকে সুন্দরবন দস্যুমুক্ত ছিল। হঠাৎ করেই  একটি  নব্য বনদস্যু  বাহিনী  সুন্দরবনে জেলেদের উপর হামলা  ও মুক্তিপন দাবী করে। কিন্তু পুলিশের বুদ্ধিমত্তার সাথে বিষয়টি মোকাবেলা করতে সক্ষম হয়।

এবং অভিযান চালিয়ে অপহৃত জেলেদের উদ্ধার ও ৩ দস্যুকে  গ্রেফতার করা হয়। ভবিষ্যতে কেউ সুন্দরবনে দস্যুতা করার দূঃসাহস দেখালে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন।

শুক্রবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সরকারি রায়েন্দা পাইলট হাইস্কুল মাঠে আত্মসমর্পনকৃত বনদস্যু, জেলে ও মৎস্যজীবীদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি কথা গুলো তুলে ধরেন ।

পুলিশ সুপার তাদের বলেন যে, অনেক জেলে রয়েছে, যাদের মধ্যে অপরাধ প্রবনতা রয়েছে। যদি কোন জেলে দস্যুতা কাজে লিপ্ত হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্বে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এছাড়া সুন্দরবনে জেলেদের নিরাপত্তার জন্য টহলে অতিরিক্ত দ্রুতগামী  একটি জলযান 
দেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ ইকরাম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন, শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নুর ই আলম সিদ্দিকী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আসাদুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মিলন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মৎস্য ব্যবসায়ি এম সাইফুল ইসলাম খোকন, শরণখোলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইসমাইল হোসেন লিটন, খোন্তাকাটা ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসন
 খান মহিউদ্দিন, ধানমাগর ইউপি চেয়ারম্যান
 মাইনুল ইসলাম টিপু উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিময় সভায় সুন্দরবনের বনজীবিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করনে । এবং এই সভায় নানা পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।ও জীববৈচিত্র
সংরক্ষণে করনীয় বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। তাদের মাঝে অনুষ্ঠান শেষে আত্মসমর্পণকৃত বনদস্যু, জেলে ও বন জীবিদের ও  মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *