প্রশান্ত সরকারকে কুপিয়ে জখম করার প্রতিবাদে মানববন্ধন

মো. আনোয়ার হোসাইন জুয়েল, কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে ব্যবসায়ী প্রশান্ত সরকারকে (২৬) প্রকাশ্যে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয় ব্যবসায়ী, এলাকাবাসী ও সর্বস্তরের লোকজন।

উপজেলা সদর বাজার ব্যবসায়ী বণিক সমিতি, পশ্চিম সাচাইল লোকজনের আয়োজনে রবিবার (২০ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে
উপজেলা পরিষদের সামনে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এসময় উপজেলা সদর বাজারের বিপুল সংখ্যক ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা লোকজন এ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা যুুুুবলীগের সহ-সভাপতি হাফিজ উদ্দিন সরকার, তাড়াইল উপজেলা পূজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি রবীন্দ্র সরকার, ব্যবসায়ী শরীফুল মাহমুদ শোয়েব, ছাত্রলীগ নেতা ও তাড়াইল-সাচাইল সদর ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হুমায়ুন কবির ভুঁইয়া, জাতীয় যুব সমাজ তাড়াইল উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি শাহ আলম সিদ্দীকিসহ ব্যবসায়ী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মানববন্ধনে বক্তারা ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, প্রকাশ্যে এভাবে একজন ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। বর্তমানে সে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এতে বুঝা যায় ব্যবসায়ীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। বক্তারা হামলাকারীকে অতিদ্রুত
গ্রেফতার করে সুষ্ঠ বিচার দাবী করেন। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারী দেন ব্যবসায়ীরা।

প্রসঙ্গত, গত ১৬ নভেম্বর বুুধবার রাত সাড়ে ৭ টার দিকে উপজেলার সাচাইল গ্রামের সদর বাজার ব্যবসায়ী প্রশান্ত সরকারকে নিজের মনোহারীর দোকানের ভিতর পরিকল্পিতভাবে প্রকাশ্যে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে মামুন ভূঞা নামের আরেক ব্যবসায়ী। অভিযুক্ত মামুন ভূঞাসহ আরো তিনজনকে আসামি করে তাড়াইল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন আহত প্রশান্ত সরকারের মা মিনা রানী সরকার। এদিকে আহত প্রশান্ত সরকারের অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় ওইদিন রাতেই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসক। 

গুরুতর আহত প্রশান্ত সরকারের মা মিনা রানী সরকার হামলাকারীদের অতিদ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য প্রশাসনের প্রতি বিনীত অনুরোধ জানিয়েছেন। 

তাড়াইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, এ ধরনের ঘটনার অভিযোগ পেয়েছি এবং আহত প্রশান্ত সরকারের মা মিনা রানী সরকার বাদী হয়ে  
৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে। ইতিমধ্যে এজাহারের ৪ নং আসামি বাচ্চু ভূইয়া কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *