অনিয়মের অভিযোগ বাগাতিপাড়ার কৃষি কর্মকর্তা খাগড়াছড়িতে বদলি

মোঃ রাশেদুল আলম রুপক, নাটোর প্রতিনিধিঃ
কৃষি প্রণোদনা বিতরণের অনিয়মের অভিযোগ উঠার পর নাটোরের বাগাতিপাড়ার সেই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হাসান আলীকে খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলায় বদলি করা হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ওয়েব সাইটে এ সংক্রান্ত এক আদেশ জারি করা হয়েছে।

গত ১০ নভেম্বর অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. বেনজীর আলমের সাক্ষরিত ওয়েব সাইটে প্রকাশিত ওই আদেশে বলা হয়েছে, কর্মকর্তাকে আগামী ১৪ নভেম্বরের মধ্যে দায়িত্বভার হস্তান্তর করতে হবে, অন্যথায় ১৫ নভেম্বর হতে তাৎক্ষনিক অবমুক্ত বলে গণ্য হবেন। এর আগে চলতি বছরের ১৯ অক্টোবর বাগাতিপাড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেছিলেন। মাত্র ২২ দিনের মাথায় তাকে বদলি করা হলো। এদিকে গত ২৬ অক্টোবর উপজেলার ১০০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে কৃষি প্রণোদনার সার, বীজ ও বিভিন্ন উপকরন বিতরণ অনুষ্ঠানে উদ্বোধনের পরপরই অনিয়মের অভিযোগ ওঠে স্থানীয় কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে। স্থানীয় সংসদ সদস্য শহিদুল ইসলাম বকুল সেই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

সংসদ সদস্যের উপস্থিতে বরাদ্দকৃত উপকরনের মধ্যে জনপ্রতি ১৫০ টাকার মূল্যের নাইলন সুতলীর পরিবর্তে প্রায় ৬০ টাকা মূল্যমানের প্যারাসুটের সুতলী এবং ২ হাজার ১০০ টাকার বরাদ্দের অর্ধেক পরিমান পলিথিন প্রদানের প্রস্তুতি নিলে কৃষকরা আপত্তি করে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি যাচাই করলে এসবের সত্যতা পাওয়ায় সংসদ সদস্যের নির্দেশে ভারপ্রাপ্ত ইউএনও সুরাইয়া মমতাজ বিতরণ কার্যক্রম ওই দিন সাময়িকভাবে স্থগিত করেন। পরে গত ৩ নভেম্বর পুনরায় বরাদ্দ অনুযায়ী বিতরণ করা হয়। এবিষয়ে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আব্দুল ওয়াদুদ জানান, কৃষি প্রণোদনার সার, বীজ ও উপকরন বিতরনে অভিযোগ উঠায় জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা ড. ইয়াছিন আলীকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। সম্প্রতি সেই তদন্ত প্রতিবেদন অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। তবে তদন্তের বিষয়ে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এবিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হাসান আলী বলেন, নিজেই তদবির করে তিনি বদলি নিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *