বাগেরহাটে বাস থেকে নারী ও শিশুসহ ৫৯ শ্রমিককে উদ্ধার

শেখ সোহেল, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি:
বাগেরহাটের ফকিরহাটে মানবপাচার চক্রের সদস্য বাবা-ছেলেকে আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। গতকাল বুধবার রাতে খুলনা-মাওয়া মহাসড়কে একটি যাত্রীবাহী বাস থেকে তাঁদের আটক করা করেন এই চক্র টি কে। এই সময়ে ওই বাস থেকে নারী ও শিশুসহ ৫৯ শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের কে ইট ভাটায় কাজ দেওয়ার কথা বলে তাঁদের পাচারের জন্য নেওয়া হচ্ছিলো বলে জানান ।

আটক ব্যক্তিরা হলেন, খুলনা জেলার পাইকগাছা উপজেলার গড়ইখালী এলাকার বাসিন্দা মো. লিটন গাজী (৫৪) ও ছেলে মো. সোহাগ গাজী (১৯)। আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয় আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের কে পাইকগাছা থানায় হস্তান্তর করা হয়। বিকেলে খুলনা র‍্যাবের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) বজলুর রশীদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

এই বিষয়ে সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) বজলুর রশীদ জানান যে, লিটন গাজী ও তাঁর ছেলে মো. সোহাগ গাজী নড়াইলের একটি ইটভাটায় কাজ দেওয়ার কথা বলে এবং নানা লোভ দেখিয়ে নারী ও শিশুসহ ৫৯ জন দরিদ্র ও অসহায় শ্রমিককে একটি বাসে তোলেন তাদের।

এই পরিকল্পনা অনুযায়ী তাঁদের নড়াইলে না নিয়ে খান জাহান আলী সেতু অতিক্রমে অন্যত্র নেওয়া হচ্ছিলো। এই বিষয়টি বুঝতে পারেন শ্রমিকেরা একপর্যায়ে জানতে পারেন যে তাঁদের চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে নেওয়া হবে।

এর পর তাঁরা বাসের মধ্যে হট্টগোল ও চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন। একপর্যায়ে গাড়িটির পিছু নেয় র‍্যাব এবং ফকিরহাট এলাকা থেকে তাঁরা শ্রমিকদের উদ্ধার করেন এবং মো. লিটন গাজী ও তাঁর ছেলে মো. সোহাগ গাজীকে আটক করেন। এবং উদ্ধার করা ৫৯ জন নারী ও শিশু দের নিজ নিজ বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *