রাজাকার ও হাইব্রীডমুক্ত আওয়ামীলীগের কমিটি গঠনের দাবিতে বিক্ষোভ

আবু হাসান (আকাশ), লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটের আদিতমারীতে রাজাকারের সন্তান ও হাইব্রীডমুক্ত ত্যাগীকর্মীর নেতৃত্বে নতুন কমিটির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে তৃণমুল আওয়ামীলীগ।
শনিবার দুপুরে লালমনিরহাট বুড়িমারী মহাসড়কে উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন করেন তারা। মানববন্ধনে অংশ নেয়া আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা জানান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি শওকত আলীর মৃত্যুর পর গঠনতন্ত্র বর্হিভুত ভাবে তিন নম্বর সহ সভাপতিকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ঘোষনা করে বিতর্কের জন্ম দেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বিএনপি’র সাবেক নেতার ছেলে রফিকুল আলম। কোন সভা না করে রেজুলেশন ছাড়াই সিনিয়র সহ সভাপতিকে বাদ দিয়ে তিন নম্বর সহ সভাপতি রবিউল ইসলাম মানিককে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়। কেন্দ্রের নির্দেশ অমান্য করে পুলিশী শক্তি প্রয়োগ করে ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে ৬টিতে সম্মেলন করেন সমাজকল্যান মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ। ৬টি ইউনিয়নের নতুন কমিটিতে রাজাকারের ছেলে, বিএনপি নেতার ছেলে, বিএনপি নেতার ভাইকে সভাপতি সম্পাদকের পদ দিয়ে বিতর্ক তৈরী করেন। সদস্য পদ না থাকলেও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্পাদকের পদও দেয়া হয়েছে এমন ব্যক্তিকে বলেও দাবি তৃণমুলের।

বক্তরা জানান, গত ৮ অক্টোবর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে তৃণমুলের নেতাকর্মীদের দাবি ও সমর্থনের ভিত্তিতে কেন্দ্রীয় নেতারা সাধারন সম্পাদক হিসেবে মাহমুদ ওমর চিশতীর নাম প্রস্তাব করেন। এতে কতিপয় হাইব্রীড নেতা পদ না পেয়ে সম্মেলন স্থগিত করতে সার্কিট হাউসে আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক মন্ত্রী শাজাহান খান ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাখওয়াত হোসেন শফিককে লাঞ্চিত করেন। হাইব্রীড আর রাজাকারের ছেলের ইউনিয়ন সম্মেলন বাতিল এবং কেন্দ্রীয় নেতাদের ঘোষিত মাহমুদ ওমর চিশতীকে সম্পাদক করে উপজেলা কমিটি দ্রুত ঘোষনার দাবিতে মানববন্ধন করেন তৃনমুল আওয়ামীলীগ। মানববন্ধন শেষে ২০ মিনিট লালমনিরহাট বুড়িমারী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন তারা। তৃনমুল আওয়ামীলীগের ব্যানারে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, ৯০ সালের উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ন সম্পাদক আব্দুর রশিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিম মিয়া, দুর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) নবি হোসেন, সম্পাদক ভাদাই ইউপি চেয়ারম্যান কৃষ্ণকান্ত রায় বিদু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক গোলাম সারওয়ার সুজন, ভাদাই ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সম্পাদক ইকবাল হোসেন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *