কুয়াকাটার উত্তাল সমুদ্র সৈকতে পর্যটকদের ভিড়

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ,কুয়াকাটা প্রতিনিধি:
বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেও বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটায় বেশ পর্যটকের ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে,বঙ্গোপসাগর উত্তাল হওয়ার কারনে বড় বড় ঢেউ আছড়ে এসে পড়ছে সৈকতে। তবে পর্যটকদের সতর্কতায় তৎপর রয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

এছাড়াও সবাইকে সতর্ক করে সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে টানানো হয়েছে লাল পতাকা।

মূলত সমুদ্র সৈকত বছরের শ্রাবণ, ভাদ্র, আশ্বিন এই তিন মাস প্রচন্ড উত্তল থাকে। এতে যেমন ভয়ঙ্কর রূপে থাকে সমুদ্র সৈকত তেমনি বড় বড় ঢেউ আপনাকে মুগ্ধ করবে।

খুলনা থেকে আসা পর্যটক শরিফুল ইসলাম বলেন, সাগরের ঢেউ বড় হয়েছে তাতে সমস্যা নেই। আমরা এখানে বন্ধুরা মিলে আনন্দ করতে এসেছি,

ঢাকা থেকে আসা সানজিদা রেশা বলেন, করোনার কারণে দুবছর পর কুয়াকাটা এলাম আমি আর আমার পরিবার। তবে আমরা এবার পদ্মা সেতু হয়ে কুয়াকাটা এসেই মেঘলাচ্ছন্ন আকাশ আর বৃষ্টি,এদিকে সাগর উত্তাল। এর পরও সাগরে নেমে গোসল করেছি। এ এক অন্যরকম অনুভূতি।

হোটেল সী ভিউ ইন্টারন্যাশনাল মোটেল লিমিটেডের ম্যানেজার সুলাইমান হোসেন জানান, বৈরী আবহাওয়া আমার হোটেল বুকিং রয়েছে এবং অনেক পর্যটকের সারা পাইতেছি।

কুয়াকাটা ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন অব কুয়াকাটা (টোয়াক) রুমান ইমতিয়াজ তুষার জানালেন, সাগর উত্তাল থাকার পরও অনেক পর্যটক রয়েছেন কুয়াকাটা। আমরা এসব পর্যটকদের সেবা দেওয়ার চেষ্টা করছি সব সময়। পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর কুয়াকাটা সৈকতে প্রতিদিনই পর্যটকের মিলন মেলা থাকে তাই আমরা চাই এভাবে পর্যটকরা আসতে থাকুক কুয়াকাটার।

কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশ জোন পুলিশ পরিদর্শক, হাসনাইন পারভেজ বলেন, আমরা পর্যটকদের সতর্ক করছি, বারবার মাইকিং করছি ,কিন্তু তারা কেউ থামছে না। বৈরী আবহাওয়া উত্তল সমুদ্র সৈকত তার মধ্যে অসংখ্য পর্যটক উপস্থিত কুয়াকাটায়। মেতে উঠছে সমুদ্রের সাথে আমরা পর্যটকদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিতে পর্যটকদের নজরে রাখছি, যাতে করে তারা বিপদের সম্মুখীন না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.