এক সপ্তাহ বন্ধের পর আবার বড়পুকুরিয়ায় কয়লা উত্তোলন শুরু

মোঃ আসাদুল্লাহ আল গালিব,দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে এক সপ্তাহ কয়লা উত্তোলন বন্ধ থাকার পর পুনরায় কয়লা উত্তোলন শুরু হয়েছে।

খনি সূত্রে জানা গেছে, খনির ফেজ পরিবর্তনের কারণে দীর্ঘ তিন মাস বন্ধ থাকার পর গত ২৭ জুলাই বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির নতুন কূপে পরীক্ষামূলক কয়লা উত্তোলন শুরু হয়। পরীক্ষামূলক উত্তোলনের এক সপ্তাহের মধ্যেই পূর্ণাঙ্গভাবে উত্তোলনের প্রস্তুতি নিতে কাজ করছিল শ্রমিকরা। এর মধ্যেই জুলাই মাসের শেষে হঠাৎ করেই খনিতে কর্মরত অর্ধ শতাধিক চীনা ও বাংলাদেশি শ্রমিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়। ব্যাপকভাবে সংক্রমণ ঠেকাতে খনি কর্তৃপক্ষ উৎপাদন বন্ধ ঘোষণা করে।

কয়লা খনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলাম সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, করোনা পরিস্থিতি কিছুটা ম্যানেজ করে শনিবার (০৬ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত চীনা শ্রমিকরা এক শিফটে কয়লা উত্তোলন শুরু করেছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে খনিতে ৩০০ চীনা ও ১৩৮ জন দেশি শ্রমিক কর্মরত রয়েছেন। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করে উৎপাদন চালু রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে। যদিও শনিবার ৭১ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এদের মধ্যে ২৭ জনের পাওয়া ফলাফলে আবারও তিনজন চীনা শ্রমিকের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুলাই সকাল সাড়ে ৯টায় খনির নতুন ফেজ থেকে পরীক্ষামূলকভাবে কয়লা উত্তোলন শুরু করে কর্তৃপক্ষ। এর আগে গত ৩০ এপ্রিল ১৩১০ নম্বর ফেজ থেকে মজুত শেষ হয়ে যাওয়ায় দীর্ঘ প্রায় তিন মাস পর ১৩০৬ নম্বর ফেজ থেকে কয়লা উত্তোলন প্রক্রিয়া শুরু করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *