সমুদ্রের গোসল নেমে সাঁতার না জানা পর্যটকের মৃত্যু

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ,কুয়াকাটা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সৈকতে গোসল করতে নেমে নাহিয়ান মাহাদি (১৮) নামের এক পর্যটকের মৃত্যু হয়েছে। তিনি সাঁতার জানতেন না বলে জানিয়েছেন তার পরিবার। শুক্রবার (২২ জুলাই) আনুমানিক দুপুর ২টায় সৈকতের জিরো পয়েন্টের পশ্চিম পাশে পরিবারের সঙ্গে গোসল করতে নেমে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

মাহাদীর পরিবারের ২৩ জন সদস্য সকালে ঢাকার ধানমন্ডি থেকে কুয়াকাটায় বেড়াতে আসেন। পরে তারা হোটেল সমুদ্র বাড়ি রিসোর্টে অবস্থান করেন বলে জানিয়েছেন মাহাদির বড় বোন নামিরা জাহান ঐশি।

ঐশি আরও জানান, গোসল করার এক পর্যায়ে মাহাদিকে দেখতে না পেয়ে তারা খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। একপর্যায়ে সী বিচের ভাঙনরোধে ব্যবহৃত দুটি জিও ব্যাগের মধ্যে পানিভর্তি গর্তে তাকে ডুবে থাকতে পায় সৈকতের ফটোগ্রাফাররা। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে ফটোগ্রাফাররা উদ্ধার করে কুয়াকাটা ২০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

মাহাদীর পরিবাররা বলেন, এই জিও টিউব এর কারণে, আমাদের পরিবারের সদস্যকে হারাতে হয়েছে। কারন জিও টিউবের পাশে যে গর্ত রয়েছে সেখানে কোন সতর্ক না থাকায়। আনন্দ উপভোগ করতে করতে ধারণা গর্তে পরে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে।

মাহাদী ধানমন্ডি এলাকার বংশাল থানার হাজি মোহাম্মদ নাছিম উদ্দিনের ছেলে। তিনি ধানমন্ডির একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আমরা পরিবারের সঙ্গে কথা বলছি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের সহকারী পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ পর্যটকের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *