মহানবী (সা.) কে নিয়ে কটুক্তি প্রতিবাদে প্রতিবাদে উত্তাল তাড়াইল

মো. আনোয়ার হোসাইন, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:
মহানবী হজরত মুহাম্মাদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল (বিজেপি) দুই নেতার (সাময়িক বহিস্কৃত) কটুক্তির প্রতিবাদে কিশোরগঞ্জের তাড়াইলে লক্ষাধিক তৌহিদী জনতার প্রতিবাদ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তাড়াইল উপজেলার কওমী মাদরাসার আলেমদের উদ্যোগে ও আয়োজনে বুুুধবার (১৫ জুন) বেলা ১১ টায় উপজেলার সাতটি ইউনিয়নের বিভিন্ন কওমী মাদরাসা ও গ্রাম থেকে সকল শ্রেণী-পেশার ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ প্রতিবাদের বিভিন্ন শ্লোগানের মাধ্যমে উপজেলা সদরের তাড়াইল সাচাইল দারুল হুদা কাছেমুল উলুম মাদরাসা মাঠে এসে মিলিত হয়।

তাড়াইল সাচাইল দারুল হুদা কাছেমুল উলুম মাদরাসা মাঠ থেকে প্রতিবাদ মিছিলটি বের হয়ে
বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার ধর্ম প্রাণ মুসলমানগণ বিভিন্ন স্লোগানের মাধ্যমে উপজেলা সদরের সবকটি সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই জায়গায় এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

মহানবী হজরত মুহাম্মাদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল (বিজেপি) দুই নেতার কটুক্তির লক্ষাধিক তৌহিদী জনতার প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, তাড়াইল সাচাইল দারুল হুদা কাছেমুল উলুম মাদরাসার পরিচালক ও শায়খুল হাদীস মাওলানা ফয়েজ উদ্দিন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, তাড়াইল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জহিরুল ইসলাম ভুঁইয়া শাহীন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, জামিয়াতুস সুন্নাহ সেকান্দর নগর এর পরিচালক ও শায়খুল হাদীস মাওলানা ফখর উদ্দিন। অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, মাওলানা আবু সায়েম, মাওলানা জুবায়ের, মাওলানা মফিজুল হক, মাওলানা বোরহান উদ্দিন, মাওলানা লুৎফুর রহমান, দিগদাইড় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সারোয়ার আলম ও ধলা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মবিন প্রমূখ।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তাগণ বলেন, আমরা মুসলমান বিশ্ব নবীর অপমান কিছুতেই মেনে নেব না। ভারতের ক্ষমতাসীন দল (বিজেপি) দুই নেতাকে সাময়িক বহিস্কার করে পার পাওয়া যাবে না। এই দুই কুলাঙ্গারকে আইনের আওতায় এনে কঠিন শাস্তির মুখোমুখি করতে হবে এবং প্রকাশ্যে রাষ্ট্রীয়ভাবে মুসলমানদের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। কারণ মুসলমানদের কলিজার ঠুকরো হচ্ছেন মহানবী হজরত মুহাম্মাদ (সা.)। এসময় নূপুর শর্মার কুশ পোত্তলিকা দাহ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.