দিনাজপুর চিরিরবন্দরে প্রথম ডিজিটাল জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

মোঃ আসাদুল্লাহ আল গালিব,দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি:
দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে প্রথম ডিজিটাল জনশুমারি ও গৃহগণনা-২০২২ এর সুপারভাইজার ও তথ্য সংগ্রহকারীদের ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আগামী ১৫-২১ জুন ২০২২ তারিখকে শুমারি সপ্তাহ হিসেবে এবং ১৪ জুন তারিখ দিবাগত রাত ১২টা শুমারি রেফারেন্স পয়েন্ট বা শূন্য মুহূর্ত ধরে গণনা শুরু হবে।

এই সময়ে স্থানীয়ভাবে সাময়িকভাবে নিযুক্ত তথ্যসংগ্রহকারীরা প্রত্যেক গৃহ, খানা ও ব্যক্তির তথ্য ট্যাবলেটের মাধ্যমে সংগ্রহ করবে। মাঠ পর্যায়ের তথ্য বাংলাদেশ ডেটা সেন্টার কোম্পানি লি. এর টায়ার ফোর সিকিউরিটি সমৃদ্ধ ডেটা-সেন্টার ব্যবহার করা হবে। সংগৃহীত তথ্য এনক্রিপটেড হওয়ায় ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা শতভাগ নিশ্চিত করা হচ্ছে।

শুক্রবার সকালে চিরিরবন্দর উপজেলার ৩নং ফতেজংপুর ইউনিয়নের ফতেজংপুর কলেজ হল রুমে ৩নং ফতেজংপুর ইউপি চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ লুনার এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চিরিরবন্দর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ লায়লা বানু।

উপজেলা জোনাল অফিসার(জোন৩) মোঃ মতিউর রহমান ও সভাপতি এবং প্রধান অতিথির হাত দিয়ে অত্র ইউপির ২ম ব্যাচের ৬৩ তথ্য সংগ্রহকারীদের মাঝে। এফ্রোন, ব্যাগ বিতরণ করা হয়। এর আগে প্রত্যেক গণনাকারীকে আগামী ১৫-২১ জুন জনশুমারীর জন্য একটি করে ট্যাব বিতরণ করা হয়।

উপজেলা পরিসংখ্যান অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলা পরিসংখ্যান ব্যুরোর আয়োজনে গত বৃহস্পতিবার হতে রবিবার পর্যন্ত ৪ দিন ব্যাপী উপজেলার ৬ টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ২য় ব্যাচের ১১ জন সুপারভাইজার ও ৬৩ জন গণনাকারীর প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,ফতেজংপুর মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ বিনয় চন্দ্র রায়, আইটি সুপারভাইজার মোঃ সাদেকুল ইসলাম, ইউপির ২নং ওয়াডের সদস্য মোছাঃ তাজমিনা আক্তার, মোঃ নূর আলম, সাংবাদিক এনামুল মবিন(সবুজ)সহ ইউপির ১১ জন সুপারভাইজার ও ৬৩ জন গণনাকারী।

উ‌ল্লেখ‌্য, বি‌শ্বের ম‌ধ্যে এবারই প্রথম ডি‌জিটাল পদ্ধ‌তি‌তে জনশুমারি ও গৃহগণনা হ‌তে যা‌চ্ছে। আগামী ১৫ জুন থে‌কে ২১ জুন পর্যন্ত এক‌যো‌গে দেশব‌্যাপী এই শুমারি চল‌বে। এটি বাংলাদেশের ৬ষ্ঠ আদমশুমারি ও গৃহগণনা (বর্তমানে জনশুমারি ও গৃহগণনা)। এর আগে ২০১১ সালের মার্চে দেশের পঞ্চম আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পঞ্চম আদমশুমারিতে দেশের জনসংখ্যা পাওয়া যায় ১৪ কোটি ৯৭ লাখ ৭২ হাজার ৩৬৪ জন। বাংলাদেশে প্রথম আদমশুমারি অনুষ্ঠিত হয় ১৯৭৪ সালে। তখন জনসংখ্যা ছিল ৭ কোটি ৬৪ লাখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.