সুদের টাকা না দেয়ায় রিকশাচালককে শিকলে বেঁধে নির্যাতন

গাজীপুর প্রতিনিধি:
গাজীপুরের শ্রীপুরে সুদের টাকা না দেয়ায় রিকশাচালক মোফাজ্জল হোসেনকে (৩৮) শিকলে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। পায়ে শিকল বেঁধে তালা লাগানোর ঘটনাটি (ভিডিও) ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরেছে। বুধবার (১ জুন) বিকেলে মাওনা বরমী সড়কের টেপিরবাড়ী (আজিজ কেমিক্যাল) সংলগ্ন স্থানে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত হাবিজুল হক তেলিহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ী গ্রামের (আজিজ কেমিক্যাল সংলগ্ন) বাসিন্দা।

ওই ভিডিওটিতে দেখা যায়, রিকশাচালক মোফাজ্জল হোসেনকে পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে। পরে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীরা ঘটনাস্থলে গেলে অভিযুক্ত হাবিজুল হক রিকশাচালকের পা থেকে শিকল খুলে ঘরের ভেতর নিয়ে যায়।

মোফাজ্জল হোসেন বলেন, হাবিজুলের কাছ থেকে সুদে আড়াই হাজার (২৫০০) টাকা ধার নিয়েছিলেন। কয়েক মাস নিয়মিত সুদ দিয়ে গেলেও সমস্যা থাকায় নিয়মিত সুদ দেওয়া হয় না। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সুদ না দেওয়ায় হাবিজুল তাঁকে শিকলে বেঁধে নির্যাতন করে।

অভিযুক্ত হাবিজুল হক বলেন, টাকা চওয়ার পর না দেওয়ায় আমার রাগ উঠে যায়। পরবর্তীতে বিষয়টি ঠিক হয়নি বুঝতে পারি আমি লজ্জিত।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, সুদের টাকার জন্য রিকশাচালক শিকলে বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় কেউ কোন অভিযোগ করেনি। বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখা হচ্ছে। অবিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.