আশুগঞ্জে তিন জন মহিলা চোরকে আটকে করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের দুই মাসের কারাদণ্ড

আকাশ সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে তিন মহিলা চোর প্রত্যেককে দুই মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার (২ জুন) দুপুরে আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অরবিন্দ বিশ্বাস এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন।কারাদন্ড প্রাপ্তরা হলেন, কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম এলাকার কামাল মিয়ার স্ত্রী শিফা (৩৫), আজিব আলীর স্ত্রী জাহেদা (৫০) ও ফেরদৌস মিয়ার মেয়ে ফাতেমা (২২)। তাদের আশুগঞ্জ থানা পুলিশের মাধ্যমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বেশকিছুদিন যাবত এই চক্রটি আশুগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিকেট কাউন্টারের সামনে এই তিনজনসহ আরো কয়েকজন দাড়ায়। এসময় টিকেটের জন্য লাইনে দাড়ানো নারীদের ঘেরাও করে কৌশলে তাদের স্বর্ণালংকার চুরি করে।এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার সকালেও তারা আবারো হাসপাতালে এসে নারীদের কাছ থেকে স্বর্ণালংকার চুরি করার চেষ্টা করছিল। পরে তা সিসি ক্যামেরা ও আগত রোগীদের মাধ্যমে তাদের আটক করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে পাঠানো হয়।

পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাদের প্রত্যেককে দুই মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন।আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অরবিন্দ বিশ্বাস বলেন, দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ধারা ১৮৮ মোতাবেক আটককৃত নারীদের প্রত্যেককে দুই মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।এই ঘটনায় আশুগঞ্জ উপজেলায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.