ফরিদপুরের নগরকান্দায় শরীরে পেরেক ডুকিয়ে ব্যবসায়ীকে হত্যা

মাহবুব পিয়াল,ফরিদপুর প্রতিনিধি:
ফরিদপুরের নগরকান্দায় নৃশংস হত্যাকান্ডে শিকার হয়েছে এক ব্যবসায়ী। তার শরীরে মধ্যযুগীয় কায়দায় শরীরের বিভিন্ন স্থানে লোহার পেরেক ডুকিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত ব্যবসায়ী উপজেলার কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের চর ছাগলদী গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা জিলু মোল্যার ছেলে বাবু মোল্যা (৩৫)। বাবুর স্ত্রী, এক ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে বলে জানাগেছে। শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে নয়টার দিকে নগরকান্দা -চরছাগলদী সড়কের পৌরসভার মিনারগ্রামের পরিত্যক্ত ইট ভাটার পাশে এ ঘটনা ঘটে।

জানাগেছে বাবু মোল্যা নগরকান্দা সদর বাজারে হার্ডওয়ারের ব্যাবসা করতেন। প্রতিদিনের ন্যায় দোকান বন্ধ করে নিজ বাড়ীতে যাচ্ছিলেন। রাত সাড়ে নয়টার দিকে পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের মিনারগ্রামের এমো মিয়ার পরিত্যক্ত ইট ভাটার নিকট পৌছিলে আগে থেকে উৎপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা গতিরোধ করে। পরে হাত, পা ও মুখ বেধে শরীরের বিভিন্ন স্থানে লোহার পেরেক ডুকিয়ে দেয়। পরে হাত ও পায়ের রগ কেটে মৃত্যু নিশ্চিত ভেবে চলে যায়। পথচারীরা দেখতে পেয়ে স্বজনকে সংবাদ দেয়। পরিবারের সদস্যরা বাবুকে উদ্ধার করে নগরকান্দা হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চিকিৎসক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই ঢাকায় নেয়ার পথে মানিকগঞ্জ পৌছালে বাবু মোল্যা মারা যান। এ ঘটনায় নিহত বাবু মোল্যার স্ত্রী তানিয়া আক্তার বাদি হয়ে ৬ জনকে আসামী করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

নগরকান্দা থানা অফিসার ইনচার্জ হাবিল হোসেন বলেন, ঘটনা ঘটিয়েই আসামীরা পালিয়ে গেছে। ওদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে। আশা করছি শীঘ্রই আসামীদের গ্রেফতার করা হবে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.