বাগাতিপাড়ায় পানিতে ডুবে আরেক শিক্ষার্থীর মৃত্যু

মোঃ রাশেদুল আলম রুপক, নাটোর প্রতিনিধিঃ
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় পানিতে ডুবে আরেক শিক্ষার্থীর মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বুধবার বিকেলে দয়ারামপুর ইউনিয়নের নন্দী কূজা নদীর পানিতে ডুবে তানিয়া খাতুন (৬) নামের আরেক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। তানিয়া চন্দ্রখৈইর এলাকার দক্ষিণ পাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে। এবং স্থানীয় ব্রাক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।

স্থানীয়রা জানায়, বিদ্যালয় ছুটির পরে বাড়ি এসে খেলার সাথীদের সঙ্গে দুপুর একটার দিকে নদীতে গোসল করতে যায় সে। নদীতে সামান্য পানি থাকায় সবাই মিলে খেলা করছিল। কখন সে পানির নীচে তলিয়ে গিয়েছে বিষয়টি কেউ বুঝতে পারেনি। পরে একজন তানিয়ার নদীর পাড়ে রাখা স্যান্ডেল তার বাড়িতে দিতে আসে। তখন তার বাড়িতে না ফিরে আসার বিষয় নিয়ে খোঁজা-খুঁজি শুরু হয়। অনেক খোঁজা-খুঁজির পরে যেখানে গোসল করতে নেমেছিল সেখানেই ডুবা অবস্থায় বিকাল তিনটার দিকে পাওয়া যায়।

দয়ারামপুর ইউনিয়নের স্থানীয় মেম্বার জাহিদ হোসেন বলেন, পুরো নদীতে পানি খুবই কম। কিভাবে সে পানির নিচে ডুবে গিয়েছে কেউ বলতে পারছে না। তবে ওই স্থানে প্রতি বছরই এরকম ঘটনা ঘটে। গতবছরও দাদির সাথে গোসল দিতে এসে দু’জন শিশু মারা গিয়েছে। এমনকি মহিষকে গোসল করাতে এসে ডুবে মারা যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম পানিতে ডুবে শিক্ষার্থীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.