নাসিরনগরে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে বই বিক্রেতা গ্রেফতার

আকাশ সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর নগর উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরীর ভেতরে এক তৃতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে লাইব্রেরীর মালিক মোঃতাহের মিয়া (৪৪) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।সোমবার গ্রেপ্তারকৃত আসামি তাহের মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে রোববার বিকেলে উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরীর ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই দিন রাতেই শিশুটির বাবা বাদী হয়ে নাসিরনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তাহের ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেরির মালিক।সে উপজেলার ফান্দাউক ইউনিয়নের ফান্দাউক গ্রামের মোঃ জয়নাল আবেদিনের ছেলে। রোববার রাত ৯টার দিকে তাহের কে ফান্দাউক বাজারে আঁখি লাইব্রেতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলার এজাহার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে অভিযুক্ত তাহের দীর্ঘদিন ধরে ফান্দাউক বাজারে লাইব্রেরির ব্যবসা করে আসছেন। ভুক্তভোগী শিশুটিকে প্রায় সময়ই তাহের তাঁর লাইব্রেরির পেছনে নিয়ে যৌন হয়রানি করতেন। ঘটনার দিন বিকেলে ওই শিশুটি একটি কলম কেনার জন্য তাহেরের দোকানে যায়। সে সময় তাহের শিশুটিকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ও ফুসলিয়ে তার দোকানের পেছনে নিয়ে শিশুটিকে যৌন হয়রানি করে। পরে শিশুটি কান্না করে বাড়িতে চলে গিয়ে তার মাকে বিষয়টি জানায়।

বিষয়টি জানাজানির পর তার বাবা স্থানীয়দের সঙ্গে আলোচনা করে নাসিরনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখীল করেন।শিশুর বাবার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই দিনই রাত ৯ঘটিকার সময় অভিযান পরিচালনা করে তাহেরকে লাইব্রেরী থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ

জানতে চাইলে নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাবিবুল্লাহ সরকার বলেন, ‘শিশুটিকে যৌন নির্যাতনের ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামী তাহের কে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.