ঘূর্ণিঝড় ‘আশানি”র প্রভাবে অগ্রিম রুম বুকিং ক্যানসেল কুয়াকাটার

জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, কুয়াকাটা প্রতিনিধি:
পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাবে গতকাল রোববার রাত থেকে টানা বৃষ্টি হচ্ছে পটুয়াখালীর পর্যটন নগরী কুয়াকাটায়।ওই রাত থেকে সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ৪ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের রেকর্ড করেছে স্থানীয় আবহাওয়া অফিস। দেশের সকল সমুদ্রবন্দরকে দুই নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

হঠাৎ করে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হওয়া বিপাকে পড়েছে স্থানীয় পর্যটন ব্যবসায়ীরা। কারণ ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাবে গতকাল থেকে পর্যটক হোটেল থেকে বের হতে পারছে না, কারণ গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি, দমকা বাতাস হচ্ছে এবং সাগরের অবস্থা ভালো না থাকায়, পর্যটনকেন্দ্র ছেড়ে নিজ নিজ গন্তব্যে রওনা দিয়েছে শত পর্যটক।

৯ মে(সোমবার ) থেকে কুয়াকাটা সমুদ্র পথের দর্শনীয় স্থানগুলোতে, পর্যটক নেওয়া বন্ধ রেখেছে, কুয়াকাটা টুরিস্ট বোর্ড মালিক সমিতি।এবং পর্যটকদের মাইকিং এর মাধ্যমে সমুদ্রে গোসল না করতে সতর্ক জানাচ্ছে, কুয়াকাটা টুরিস্ট পুলিশ। এদিকে অধিকাংশ হোটেলের অগ্রিম রুম বুকিং ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র কারণে ক্যানসেল হয়েছে।

খুলনা থেকে আসা পর্যটক আয়েশা খাতুন জানান, ঈদের ছুটিতে সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটা বেড়াতে এসেছি, আসার পর থেকেই গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি আকাশ মেঘলা রয়েছে। সূর্য উদয় ও সূর্যাস্ত দেখতে পাইনি, এবং সাগরে অবস্থাও ভাল না এ কারণে নিজের বাসায় চলে যাচ্ছি। একই সময় ঢাকা থেকে আসা দেলোয়ার বলেন, ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাবে মেঘাচ্ছন্ন রয়েছে, কুয়াকাটা সমুদ্র উত্তাল হয়েছে, বৃষ্টির কারণে হোটেল থেকে বের হতে পারছি না, ওদিকে অফিসের সময় হয়ে আসছে। তাই কুয়াকাটা ছেড়ে নিজের গন্তব্যে চলে যাচ্ছি। আবার ছুটি পেলে চলে আসব কুয়াকাটায়।

কুয়াকাটা টুরিস্ট বোর্ড মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কেএম বাচ্চু বলেন, আবহাওয়া অনুকূলে না আসা পর্যন্ত, আমার নিজের ব্যক্তিগত ট্যুরিস্ট বোর্ড পর্যটকদের নিয়ে যে সমুদ্রপথের ভ্রমণ রয়েছে তা বন্ধ রয়েছে, আমাদের সংগঠন থেকে অতি দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

কুয়াকাটা হোটেল মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক, মোতালেব শরীফ সংবাদদাতাকে জানায়, ইতিমধ্যেই অনেক হোটেল ফাঁকা হয়ে গেছে। এবং অনেক হোটেলের রুম বুকিং ক্যানসেল হয়েছে। কারণ ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাবে পর্যটকরা তার নিজ নিজ গন্তব্যে চলে গেছে।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোনের পুলিশ পরিদর্শক হাসনাইন পারভেজ বলেন, আমরা পর্যটকদের সতর্ক করছি, ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র প্রভাবে উত্তাল হয়ে উঠছে এই সমুদ্র সৈকত।  এবং লক্ষ্য করলাম আবহাওয়া খারাপ এর কারণে পর্যটক কুয়াকাটা ছেড়ে চলে যাচ্ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.