ঈদে প্রধানমন্ত্রী উপহার হিসেবে ঘর পাচ্ছেন ভোলায় ৩৬৫ ভূমিহীন পরিবার

সাব্বির আলম বাবু,  ভোলাঃ
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় ধাপে ঈদ উপহার হিসেবে ভোলা সদর উপজেলায় জমিসহ ঘর পাচ্ছেন ৩৬৫ ভূমিহীন পরিবার। এরই মধ্যে ভূমিহীনদের জন্য টিনসেড পাকা ঘর নির্মাণ শেষ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার সকালে ভূমিহীন ও গৃহহীন ৩৬৫ পরিবারের মাধ্যে ঘরের চাবি হস্তান্তর করা হবে। সকালে ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই সব ভূমিহীন ও গৃহহীন (ক শ্রেনি) পরিবারের মধ্যে ঘরের চাবি হস্তান্তর করবেন। ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুল ইসলাম জানায়, মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ভোলা সদর উপজেলায় আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় তৃতীয় পর্যায়ে ৩৬৫টি ঘর বরাদ্দ করা হয়েছে। এরই মধ্যে মধ্যে ৪০টি ঘর নির্মাণ শেষ হয়েছে। ২৬ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী এসব ঘর আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করবেন। ওইদিনই আমরা উপকারভোগীদেরকে তাদের ঘর বুঝিয়ে দেব। পর্যায়ক্রমে বরাদ্দকৃত অন্য ঘরও ভূমিহীন ও হতদরিদ্রদেরকে বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়া আগামী জুনের মধ্যে বরাদ্দকৃত অবশিষ্ট ঘর উপকার ভোগীদের মাঝে হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে নির্বাহী অফিসার। এদিকে ঈদের আগে পাকা ঘরে ওঠার সংবাদে খুশি উপকারভোগীরা।

উপকারভোগী কুলসুম বেগম জানান, আগে কোন ঘরবাড়ি ছিলোনা। অন্যের জমিতে থাকতাম কোন রকম কুঁড়ে ঘর করে। এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমের একটা বিল্ডিং এর ঘর দিছে। এর জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। দুই শতাংশ জমিতে নির্মিত প্রতিটি বাড়িতে দুটি শোবার ঘর, একটা রান্না ঘর, একটা ইউটিলিটি রুমে, একটা শৌচাগার ও একটা বারান্দা রয়েছে। তৃতীয় পর্যায়ের এসব ঘরের প্রতিটির নির্মাণ খরচ হয়েছে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৫০০ টাকা করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.