রামপালে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নিহত ১

শেখ সোহেল, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি:
বাগেরহাটের রামপালে তারাবির নামাজের পর তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীর হামলায় মল্লিক দিদারুল আলম (৫০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়। এঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২০ এপ্রিল) রাতে তারাবির নামাজের পরে উপজেলার কুমলাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শামসুদ্দিন বিষয়টি জানান।

মল্লিক দিদারুল আলম কুমলাই গ্রামের ইউনুস মল্লিকের ছেলে। তার স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

এঘটনায় হামলাকারী আঃ সাত্তার মল্লিককে (৬৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আ. সাত্তার মল্লিকের ছেলে আবু বক্কর ঘটনার পর থেকে তিনি পলাতক রয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি মোহাম্মদ শামসুদ্দিন জানান যে, আঃ সাত্তারের স্ত্রী নেই। তার বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ রয়েছে। এই সমস্যার সমাধান করতে আঃ সাত্তারকে বিয়ে করিয়ে দেওয়ার জন্য তার ছেলে আবু বক্করকে পরামর্শ দেন । এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আঃ সাত্তার মল্লিক ও তার ছেলে আবু বক্কর মল্লিক দিদারুল আলমের ওপর হামলা করেন। তাদের পিটুনি ও দায়ের কোপে গুরুতর আহত হন দিদারুল। পরে রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও জানান, রামপাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নিহতের মরদেহ পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তার শরীরে বিভিন্ন জায়গায় ধারালো অস্ত্রের কোপের চিহ্ন রয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।

এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। হামলাকারী আঃ সাত্তারকে গ্রেফতার করা হয়। সাত্তারের ছেলে আবু বক্করকে গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.