কিশোরগঞ্জে ভুট্টার বাম্পার ফলন কৃষকের মুখে হাসি

মোঃ দেলোয়ার হোসেন, নীলফামারী:
উত্তরাঞ্চলের নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় এবার ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলনে কৃষকরা অনেক খুশি। তবে উৎপাদিত ভুট্টার দাম নিয়ে কৃষকদের মনে এক ধরনের হতাশা বিরাজ করছে। তাদের কথায়, কৃষক মাঠে যে শ্রম দিচ্ছে তার মূল্য পাচ্ছে না। অথচ মধ্যস্বত্বভোগী সবচেয়ে বেশি মুনাফা করছে।

কিশোরগঞ্জ উপজেলার কৃষি অফিসার বলেন, জেলার মাটি ও আবহাওয়া ভুট্টা চাষের উপযোগী। গত কয়েক বছর ধরে ভুট্টার পাশাাপশি গমের ফলনও ভালো হচ্ছে। জেলা কৃষি অফিস বলছে, আবাদ ও উৎপাদনের দিক দিয়ে দেশের সর্বোচ্চ গম-ভুট্টা ও ধান উৎপাদনকারী জেলা নীলফামারী। সরকারও এ জেলা থেকে কৃষকের নিকট থেকে ন‍্যায‍্য মূল‍্যে গম কেনে সর্বাধিক। চলতি বছরের চিত্র একেবারেই ভিন্ন। গমের তুলনায় ভুট্টার দাম বেশি পাওয়ায় এবার জেলায় কমেছে গমের আবাদ।
কৃষি অফিসের সূত্র জানায়, চলতি বছর জেলায় গমের আবাদ কমে ভুট্টার ফলন বেশি হয়েছে। আর গমের চেয়ে ভুট্টার দাম বেশি পাওয়া যাচ্ছে।

কয়েক বছর ধরেই জেলার প্রতিটি উপজেলায় গমের ভালো ফলন হচ্ছে। তবে কৃষকেরা বলছেন, বাজারে গমের থেকে ভুট্টার দাম বেশি থাকায় তারা ভুট্টা চাষের দিকেই ঝুঁকছেন। আবাদ ও উৎপাদনের দিক থেকে যা দেশের সর্বোচ্চ। কিন্তু দেশের সর্বোচ্চ হলেও নিজ জেলায় গত বছরের তুলনায় কমেছে এবারের আবাদ।

উপজেলার কেশবা গ্রামের ভুট্টা চাষি আজগার আলী জানান, চলতি বছর তিনি সাড় ৫ একর জমিতে ভুট্টা চাষ করেছেন। খরচ হয়েছে প্রায় ৫০ হাজার টাকা। আর উৎপাদিত ভুট্টা বিক্রি করে লাভ হয়েছে প‍্রায় ৮০ হাজার টাকা। তার অভিযোগ, মাঠ পর্যায়ে কৃষকরা সব সময় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। প্রতি বছরই মধ্যস্বত্তভোগীরা কৃষকদের কাছ থেকে ভ্ট্টুা কিনে নিয়ে অনেক মুনাফা করে।এদিকে সরকার দৃষ্টি দিলে কৃষকরা সত্যিকার অর্থে উপকৃত হত।

উপজেলা কৃষি অফিসার হাবিবুর রহমান বলেন, উপজেলায় এবার ৩ হাজার ৩ শত ৫৬ হেক্টর জমি ভুট্রা চাষ হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বিগত বছর গুলোর তুলনায় ফলন ভালো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.