রণক্ষেত্র নিউমার্কেট, সংঘর্ষের ৩ ঘণ্টা পর ঘটনাস্থলে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:
রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকা কার্যত রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। সকাল থেকেই সংঘর্ষে জড়িয়েছে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা। দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থান নিয়ে পরস্পরের দিকে ঢিল ছুঁড়ছে। থেমে থেমে ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া গেছে। সংঘর্ষ শুরুর তিন ঘণ্টা পর দুপুর ১২টা ৫৫ মিনিটে তেজগাঁও জোনের ডিসি বিপ্লবের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

এদিকে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা চন্দ্রিমা সুপার মার্কেট ও নূরজাহান মার্কেটের কয়েকটি দোকানে আগুন ধরিয়ে দেয়। ব্যবসায়ীরা আগুন নেভানো চেষ্টা করে। তবে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়ার পরও কোনো সাড়া মেলেনি বলে ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন। বেলা সোয়া ২টার পর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে। বেলা পৌনে ২টার দিকে শিক্ষার্থীদের ঢাকা কলেজ ক্যাম্পাসে ঢোকাতে সক্ষম হয় তারা। শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস থেকেও ঢিল ছুড়ছে।

এদিকে, নিউমার্কেট এলাকার রাস্তা বন্ধ থাকার প্রভাব পড়েছে গোটা রাজধানীতে। বিভিন্ন সড়কে তীব্র যানজট দেখা গেছে।

গতকাল সোমবার রাতের সংর্ঘষের জের ধরে আজ মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) সকাল ১০টার দিকে আবারও সংঘর্ষ শুরু হয়। এখন নিউ মার্কেটের সামনের রাস্তা কার্যত রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে।

এর আগে সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে রাজধানীর ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ‘কথা-কাটাকাটির জেরে’ নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আড়াই ঘণ্টা ধরে দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় পাল্টাপাল্টি ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

মধ্যরাতে নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা কলেজ শিক্ষার্থী, পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনার জের ধরে মঙ্গলবার সকাল থেকে নিউমার্কেট এলাকা অবরোধ করে রেখেছে শিক্ষার্থীরা। এতে নিউমার্কেটের সব দোকানপাট বন্ধের সঙ্গে সড়কের উভয় পাশে যানবাহন চলাচলও বন্ধ হয়ে গেছে।

শিক্ষার্থী ও পুলিশ সূত্র জানায়, সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। উত্তেজনা চলে ভোর পর্যন্ত। এ ঘটনার জের ধরে নিউমার্কেট খুলতে না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এদিকে ঢাকা কলেজের মঙ্গলবারের সব ক্লাস ও পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। একই সঙ্গে কলেজের সব শিক্ষককে সকাল ১০টায় ক্যাম্পাসে উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে। কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ এ অনুরোধ জানিয়েছেন।

এর আগে সংঘর্ষের শুরুর দিকে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা শুরু করে। এ সময় উভয় পক্ষকে শান্ত করার চেষ্টা ব্যর্থ হলে তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার শেল ছোড়ে পুলিশ। এক পর্যায়ে সংঘর্ষ থামলেও নিউমার্কেট এলাকাজুড়ে রাতভর উত্তেজনা বিরাজ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.