নিবন্ধন পেলো পবিপ্রবি ফটোগ্রাফি ক্লাব

আবু হাসনাত তুহিন, পবিপ্রবি প্রতিনিধি:
পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) ২০১৩ সাল থেকে পরিচালিত হয়ে আসা পবিপ্রবি ফটোগ্রাফি ক্লাবটি অবশেষে নিবন্ধন পেয়েছে। 

বুধবার(৫ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্তের উপস্থিততে ক্লাবটি নিবন্ধন লাভ করে। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. সন্তোষ কুমার বসু, উপদেষ্টা ড. কুমার দেবাশীষ দত্তসহ শিক্ষক- শিক্ষার্থীরা।

গঠনতন্ত্র অনুসারে ২৩ জন সদস্য এ ক্লাবের বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করবেন। এদের মধ্যে আহ্বায়ক কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন রাহাত বিন মুস্তাফিজ আর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে পালন করবেন পার্থ প্রতীম ভৌমিক।

এসময় ক্লাবের বর্তমান সভাপতি রাহাত বিন মুস্তাফিজ বলেন, আমাদের সকলের স্বপ্নে গড়া এই ক্লাবের অনুমোদন পেয়ে আমরা খুবই আনন্দিত। এখন ক্লাবের জন্য প্রশাসন একটি অফিস রুমের ব্যাবস্থা করে দিলে আমাদের সকল কর্মসূচি পুরোদমে শুরু করতে আর কোন বাঁধা থাকবে না। আমাদের মূল লক্ষ্য, বিভিন্ন শিক্ষামূলক কর্মসূচি পরিচালনা করার মাধ্যমে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের প্রতিভা বিকশিত করা এবং পবিপ্রবি থেকে আন্তর্জাতিক মানের দক্ষ ও নিষ্ঠাবান আলোকচিত্র শিল্পী  তৈরী করা।

উপদেষ্টা ড. কুমার দেবাশীষ দত্ত বলেন, পবিপ্রবি ফটোগ্রাফি ক্লাব এর জন্য ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্র রুমের ব্যবস্থার অনুরোধ করছি, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এ ক্লাবের ফটোগ্রাফারদের প্রতিষ্ঠানিকভাবে যুক্ত করার অনুরোধ করছি। সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

জানা যায়, পবিপ্রবির এ ক্লাবটিতে রয়েছেন বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরুষ্কার প্রাপ্ত বেশ কয়েকজন ফটোগ্রাফার। এদের মধ্যে আরিফুল ইসলাম মুন্না, আসিফ নেওয়াজ,মেহেদী আজম,তানজিলা বিশ্বাস মুনিয়া, তন্ময় কর্মকার কৌশিক, রাহাত বিন মুস্তাফিজ, পার্থ প্রতীম ভৌমিক, আলফা রেজা মিতু অন্যতম।

শিক্ষক- শিক্ষার্থীদের নিজস্ব উদ্যোগ ও সমন্বয়ে পরিচালিত হয়ে আসা ক্লাবটি দীর্ঘদিন ধরে

নিবন্ধনের অপেক্ষায় ছিলো। অবশেষে সেটি নিবন্ধন পাওয়ার ফলে ক্লাবের সদস্যদের মধ্যে কাজ করার আগ্রহ বেড়ে গেছে। 

উল্লেখ্য, পবিপ্রবি ফটোগ্রাফি ক্লাব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শুরু থেকেই  বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন প্রকাশনীর জন্য প্রয়োজনীয় ছবি তুলে দিয়েও সাহায্য করে আসছে। এখন পর্যন্ত এ ক্লাব দুটি ফটোএক্সিভিশন করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.