কচুয়ায় নির্মিত হল দৃষ্টিনন্দন ডিজাইনের আধুনিক মসজিদ

শেখ সোহেল,বাগেরহাট:
বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার প্রত্যন্ত এক গ্রাম পদ্মনগরে নির্মিত হয়েছে দৃষ্টিনন্দন ডিজাইনের আধুনিক মসজিদ কমপ্লেক্স। আধুনিক স্থাপত্য বিদ্যার সাথে মুসলিম ঐতিহ্যের সংমিশ্রণে তৈরি একগম্বুজ বিশিষ্ট্য এই মসজিদের চোখ জুড়ানো সৌন্দর্য্য দেখে মুগ্ধ সবাই। পদ্মনগর গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলামের নিজস্ব অর্থায়নে ইজারা পদ্মনগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ নামের এই মসজিদটি নির্মিত হয়েছে।

শুক্রবার (০১ এপ্রিল) জুমআর নামাজের মধ্য দিয়ে এই মসজিদের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। মজলিসে দাওয়াতুল হক বাংলাদেশের নায়েবে আমীর শাইখুল হাদীস পীরে কামেল আল্লামা মুফতি মনসুরুল হক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই মসজিদের উদ্বোধন করেন। এসময় বাগেরহাট জেলা বিএনপির আহবায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিম, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নকিব নজিবুল হক নজু, বাগেরহাট চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রিজের সভাপতি লিয়াকত হোসেন লিটন, কচুয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজ শিকদার, ইজারা পদ্মনগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সভাপতি সরদার বজলুর রহমান, সভাপতির ছেলে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সরদার জাহিদুল ইসলাম, খাদেমুল ইসলাম পদ্মনগর মাদরাসা ও এতিমখানার মুহতামিম মুফতি মাওলানা ইমরান হোসাইন, ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম খোকনসহ স্থানীয় দুই সহস্রাধিক ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। জুমআরা নামাজ শেষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসা মুসল্লীদের দুপুরের খাবার প্রদান করা হয়।

মসজিদের পূর্ব এবং উত্তর পাশে রাস্তা এবং পশ্চিম পাশে পদ্মনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠ এবং দক্ষিন পাশে রয়েছে কবরস্থান। পূর্বপাশে রাস্তার ওপারে ইসলামী পাঠাগার ও অজু খানা। মসজিদের অদূরে করা হয়েছে খাদেমুল ইসলাম পদ্মনগর মাদরাসা ও এতিমখানা। যেখানে হিফজ, কিরিআত ও কওমি শিক্ষা চালু রয়েছে। বর্তমানে মাদরাসাটিতে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে।

মসজিদ নির্মানে ব্যয়িত অর্থের পরিমান ও শ্রমিক সংখ্যার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মূলত আল্লাহর রাজি খুশির জন্য এলাকার মানুষের উপকারে এই মসজিদ নির্মান করেছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.