হাতীবান্ধায় সহকারী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ঠিকাদারের সংবাদ সম্মেলন

কাজী শাহ আলম, লালমনিরহাট:
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ঠিকাদারী কাজের উত্তোলিত বিলে ঘুষ না দেওয়ায় মারমুখি আচারণ, প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ঠিকাদার শহিদুল ইসলাম সেলিম।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে হাতীবান্ধা প্রেসক্লাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সিন্দুর্না ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ঠিকাদার শহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, আমি এলজিইডি’র একজন নিয়মিত ঠিকাদার। গত ২০ মার্চ আমার কাজের বিলের জন্য এলজিইডি অফিসে গেলে সহকারী প্রকৌশলী হাদিউজ্জামান আশিক বিলের বিনিময় ঘুষ দাবী করেন। ঘুষ দিতে অস্বীকার করলে উক্ত সহকারী মাঠ প্রকৌশলী আমার উপর মারমুখি আচারণ করেন। এক পর্যায়ে বিষয়টি তাৎক্ষনিক ভুল স্বীকার করলে উপজেলা প্রকৌশলীসহ এলজিইডি অফিসের সবার উপস্থিতিতে উপজেলা চেয়ারম্যানের মধ্যস্থতায় সমাধান হয়। পরে আমি উপজেলা গেটে আসলে হাদিউজ্জামান আশিক আমাকে কৌশলে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়। তার প্রস্তাবে আমি একমত না হয়ে বিষয়টি উপজেলা প্রকৌশলীকে অবগত করি। এ ঘটনার পরের দিন স্থানীয় থানায় আমার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা সাধারণ ডায়েরী করেন সহকারী মাঠ প্রকৌশলী হাদিউজ্জামান আশিক। উক্ত সূত্র ধরে কয়েকটি গনমাধ্যমে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত সংবাদ প্রকাশ করে। আমি উক্ত সংবাদের প্রতিবাদসহ পুরো ঘটনা তদন্ত করে এলজিইডির সহকারী মাঠ প্রকৌশলী এ.এম হাদিউজ্জামান আশিকের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এলজিইডির উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করছি।
এ বিষয়ে সহকারী প্রকৌশলী (প্রভাতি প্রকল্প) হাদিউজ্জামান আশিক জানান, ঠিকাদার শহিদুল ইসলাম সেলিম সংবাদ সম্মেলনে আমাকে জড়িয়ে যে কথা বলেছে সেটি মিথ্যা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.