শ্রীপুরে লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টি সেন্টার শুভ উদ্বোধন

টি.আই সানি,গাজীপুর প্রতিনিধিঃ
গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠছে বাহারী চাইনিজ-ফাস্টফুড রেস্টোরেন্ট। গ্রাম-পল্লীর নিরিবিলি স্থানে এসব রেস্টোরেন্টের অবস্থান। তরুণ শিক্ষিত যুবকরা উদ্দ্যোগী হয়ে গড়ে তুলছে এসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

রেস্টোরেন্ট গুলোতে আসে স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, উঠতি বয়সের তরুণ তরুণীসহ সব বয়সের মানুষ। শহরের বাইরে পল্লী গ্রামের রেস্টোরেন্টগুলোতে দেশি-বিদেশি খাবার একটু ভিন্ন পরিবেশ ভোক্তাদের আকৃষ্ট করে।

গাজীপুরের শ্রীপুরে উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের মাওনা ১নং ওয়ার্ডের গ্রামীণ জনপথে রাস্তার পাশে অপেক্ষাকৃত নির্জন স্থানে লবলং ফুট পার্ক পার্টি সেন্টার এন্ড রেস্টোরেন্টের অবস্থান । রাস্তর পাশের নিচু জমিতে খুঁটির উপর কাঠের মাচা করে নির্মাণ করা হয় বাহারী স্থাপনা। গ্রামীণ অভয়বে কাঠ-বাঁশ-খড়ের ব্যবহার করে নির্মিত স্থাপনাগুলোতে করা হয় বর্ণিল ডিজাইনে। তৈরি করা হয় মনোরম পরিবেশ। বর্ণিল আলোর ঝলক রাতের আঁধারে দূর থেকে নজকারে। ২৪ মার্চ সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টি সেন্টার শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন মাওনা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম খোকন। এসময় বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সিরাজুল ইসলাম সিরাজ,মুক্তিযোদ্ধা মোঃ মুক্তাদির,মাওনা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মজিবুর রহমান, আওয়ামীলীগনেতা আবুল কাশেম, মাওনা ১নং ওয়ার্ড সদস্য হাফেজ মাওঃমোঃ শামীম মৃধা,ফজলুল হক,ফয়সাল মৃধা,সাদ্দাম মৃধা,অনিক মৃধাসহ স্থানীয় নেতা কর্মী গণ উপস্থিত ছিলেন।

লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টি রস্টোরেন্ট নিবৃত গ্রামে বসে শহরের স্বাদ পাওয়া যাবে এবং এই রেস্টোরেন্টে। ফরমায়েশ দিলেই তৈরি করা হয় পছন্দের খাবার। মেনুতে থাকে ইন্ডিয়ান, থাই, চাইনিজ, বাংলা খাবার, কোমল পানিয়, ফাস্টফুডসহ রকমারী খাবার।এসব রেস্টোরেন্টে রয়েছে সব ধরনে পার্টি করার সু-ব্যবস্থা। বিকেলে,সন্ধ্যায় এবং ছুটির দিনে অপেক্ষা কৃত বেশি গ্রাহক আসেন। বিভিন্ন উৎসবে ভীর বেড়েযায় কয়েকগুন।

লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টি রস্টোরেন্ট মালিকগণ বলেন, বিশাল পাথারের মধ্যে মনোরম পরিবেশে গড়ে তোলা হয়েছে রেস্টোরেন্টটি। গ্রাহকের চাহিদা অনুযায়ী ইন্ডিয়ান,থঠন,চাইনিজ খাবার রিবেশন করা হয়। ফাস্টফুডের পাশাপাশি রয়েছে মিনি চাইনিজের আয়োজন। সুলভ মূল্যে খাবার সরবরাহ করা হয়। জন্মদিনসহ ২০/৩০ জনের বিভিন্ন পার্টির ব্যবস্থাও রয়েছে।

লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টিসেন্টারের মালিক এবং মাওনা ইউনিয়নের মাওনা ১নং ওয়ার্ড সদস্য মো. শামীম আহাম্মেদ মৃধা বলেন,আমাদের ঐতিহ্যবাহী লবলং সাগরের নাম ইতিহাসের পাতায় লিখা রয়েছে। তবে কালের বিবর্তনে এই লবলং সাগরের নাম মুছে যাচ্ছে। বর্তমান তরুন সমাজ যাতে লবলং সাগরের নামের বিষয়টি মনে রাখে সেই ধারনা থেকে লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টিসেন্টারের নাম করন হয়েছে। তাছাড়া  এলাকায় শিল্পোন্নয়নের ফলে মানুষের জীবনযাত্রার মান বেড়েছে। পাশাপশি চাহিদার ও পরিবর্তন হয়েছে। গ্রাহকদের চাহিদার কথা চিন্তা করেই ২৪ মার্চ লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টিসেন্টর গড়ে তোলা হয়েছে। চাইনিজ ফাস্টফুড কোমল পানিয় জাতীয় খাবার বিক্রি করে থাকেন। সব বয়সের গ্রাহকরাই আসবে। ছুটির দিন বা উৎসবে গ্রাহকের চাপ থাকবে খুব বেশি বলে মনে করছেন লবলং ফুড পার্ক এন্ড পার্টিসেন্টারের মালিকগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.