নোয়াখালীতে প্রতারণার দায়ে এক নারীর ১৫ দিনের কারাদণ্ড

নোয়াখালী প্রতিনিধি:
নোয়াখালীর সেনবাগে মুজিব বর্ষের ঘর পাইয়ে দেওয়া কথা বলে প্রতারণা করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে বিবি খাদিজা (৩৮) নামের এক নারীকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। দন্ডাদেশ প্রাপ্ত বিবি খাদিজা উপজেলার ৩নং ডমুরুয়া ইউনিয়নের পাইখাস্তা আশ্রয়হীন প্রকল্প গ্রামের আবুল কালাম স্ত্রী।

বুধবার (২৩ মার্চ) দুপুরে সেনবাগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাজমিনা আলম তুলি এ দন্ডাদেশ দেয়। ওই নারীকে কারাগারে প্রেরণের জন্য সেনবাগ থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, বিবি খাদিজা দীর্ঘদিন থেকে সেনবাগ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুন নাহার ও ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাজমিন আলম তুলির নাম ভাঙ্গিয়ে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অসহায় লোকজনকে আশ্রয়হীন প্রকল্পের ঘরসহ সরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে লোকজনের কাছ থেকে বিপুল পরিমান টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিচ্ছেন এমন অভিযোগ করেন কেশারপাড় ইউপির ১নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আলেক হোসেন মেম্বার। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে কৌশলে প্রতারক খাদিজা বেগমকে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে হাজির করেন মেম্বার অলক। এরপর নিবার্হী অফিসার প্রতারক খাদিজার নিকট থেকে একটি ডায়েরি জব্দ করেন। জব্দ করা ওই ডায়রিতে লিখা বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে নেয়া প্রতারণার টাকার বিষয়ে অবগত হন। এ সময় প্রতারক নারী নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে অজ্ঞান হয়ে ফ্লোরে গুয়ে পড়। ইউএনও সাথে সাথে হাসপাতালে থেকে ডাক্তার ডেকে এনে তাকে সুস্থ্য করে তোলেন।

পরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজমিনা আলম তুলি প্রতারণার দায়ে দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ১৮৮ ধারা ভঙ্গ করার অপরাধে তাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.