দ্রব্যমুল্য উর্ধ্বগতিতে সাধারণ মানুষ দিশেহারা-হ্নীলায় বিএনপি নেতা শাহজাহান চৌধুরী

এইচ এম, হাশেম আলী আজাদ, সেন্টমার্টিন:
উখিয়া-টেকনাফের সাবেক সাংসদ ও কক্সবাজার জেলা বিএপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী বলেছেন, ‘সরকারি মন্ত্রীদের কারসাজিতে রমজানের আগে দিন দিন দ্রব্যমুল্যে উর্ধ্বগতির কারণে সাধারণ মানুষ আজ দিশেহারা। বিশেষ করে মধ্যবিত্ত পরিবারের বুকফাটা আর্তনাদ কেউ শুনছে না। টিসিবি (ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ) পণ্য বিক্রির নামে দলীয় লোকদের কাছে কার্ড পৌঁছে দিচ্ছে। অথচ প্রকৃত অসহায় পরিবারগুলো কার্ড পাচ্ছেনা।টিসিবি কার্ড বিতরণ দেখে সেই চুয়াত্তর সালের দুর্ভিক্ষের কথা মনে পড়ছে। বিএনপি ক্ষমতায় এলে সুষম বন্টন নীতির মাধ্যমে সাধারণ মানুষের দৌরগোড়ায় সকল সুবিধা পৌঁছে দেওয়া হবে’।

তিনি বলেন, ‘আওয়ামীলীগ দিশেহারা হয়ে গেছে। চারদিকে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে বিএনপির ঘাড়ে চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। এই সরকার জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চাই। পুলিশ লেলিয়ে বন্দুকের নলে আবারো ক্ষমতায় আসার পাঁয়তারা সৃষ্টি করছে। তাদের সে আশা এবার পুরণ করতে দেবেনা দেশের জনগন।

নাফ নদীতে মাছ শিকার বন্ধ রেখেছে। জেলেদের পরিবারে হাহাকার চলছে। অথচ সরকারের কাছে দাবী রাখছেনা আওয়ামীলীগ এমপি নেতারা। দীর্ঘ বছর ধরে টেকনাফ থেকে হোয়াইক্যং পর্যন্ত প্রধান সড়কের বেহাল দশা। উন্নয়নের নামে হরিলুট করা হচ্ছে। বাংলাদেশকে দুর্নীতির আখড়া বানিয়েছে’।

তিনি আরো বলেন, ‘বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে টেকনাফে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিদ্যুত, রাস্তা ঘাটের উন্নয়ন হয়েছে। ব্যবসা বানিজ্য বৃদ্ধি পেয়েছিল। এখন টেকনাফের মানুষকে জিম্মি করে রাখছে আওয়ামীলীগ। এই বাংলাদেশকে হাসিনা সরকার থেকে উদ্ধার করবে বিএনপি। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

আওয়ামীলীগ বিএনপি দলের অভ্যন্তরে কোন্দল সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে। সবাইকে সাবধান থাকতে হবে।
রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় ২৫ ভাগ হোস্ট কমিউনিটিকে বরাদ্ধ দেওয়ার কথা থাকলেও তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এজন্য বিএনপি নেতা কর্মী ও জনসাধারণকে নিয়ে মানববন্ধন করা হবে’।

উপরোক্ত কথাগুলো বলেছেন টেকনাফ উপজেলা হ্নীলা ইউনিয়ন দক্ষিণ শাখা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উখিয়া-টেকনাফের সাবেক সাংসদ ও কক্সবাজার জেলা বিএপির সভাপতি শাহজাহান চৌধুরী।

(২২ মার্চ) মঙ্গলবার হ্নীলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে হ্নীলা দক্ষিন বিএনপির সাধারন সম্পাদন আবছার কামাল ছিদ্দিকী ও উপজেলা যুবদলের যুগ্ন আহবায়ক মোক্তার হোসেন বাপ্পীর যৌথ সঞ্চালনায় হাফেজ আবদুর রহিমের কোরআন তেলওয়াতের মাধ্যমে হ্নীলা দক্ষিণ শাখার বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন উদ্বোধন করেন টেকনাফ উপজেলা বিএনপির সভাপতি এড. হাসান ছিদ্দিকী, প্রধান বক্তা ছিলেন, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাদত হোসেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, টেকনাফ উপজেলা বিএনপির সি. সহ-সভাপতি মো. হাসেম মেম্বার, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. সেলিমুল মোস্তফা, যুগ্ন সম্পাদক মো. আলী মেম্বার, সহ-সভাপতি আলী আহমদ মেম্বার, হোয়াইক্যং দক্ষিন বিএনপির সভাপতি আলী আকবর মেম্বার, বিশেষ বক্তা উপজেলা যুবদলের আহবায়ক মো. কাইয়ুম।

বাহারছড়া দক্ষিন বিএনপির সভাপতি ছৈয়দ হোসেন মেম্বার, সাবরাং ইউনিয়ন সভাপতি মাও. আবদুল গফুর, উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ এম উসমান গনি, বাহারছড়া দক্ষিন সদস্য সচিব ছৈয়দ আহমদ, হ্নীলা দক্ষিন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জহুর আলম, হেলাল উদ্দিন, জেলা যুবদলের সদস্য আবদুল আমিন আবুল, উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন, মো. সিকান্দর, উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব রফিকুল আলম চৌধুরী, উপজেলা শ্রমিক দলের আহবায়ক মো. হোসাইন আনিম, পৌরসভা শ্রমিক দল সভাপতি আবদু রশিদ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক এড. রশিদুল আলম চৌধুরী, উপজেলা শ্রমিক দল সদস্য সচিব ওমর সাদেক, ফায়সাল আমিন দুর্জয়, উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক মো. হারুন, সাবেক যুগ্ন আহবায়ক আবু হুরাইরা শামিম, টেকনাফ সরকারি ডিগ্রি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি আতা উল্লাহ, উত্তর যুবদল আহবায়ক মো. হারুন অর রশিদ, দক্ষিন যুবদল আহবায়ক মো. সেলিম সর্দার, সদস্য সচিব মো. সেলিম, যুবদল নেতা শাহ আলম, নুর হোসেন পুতু, জালাল উদ্দিন, দক্ষিন ছাত্রদলের সভাপতি মোকতার হোসেন, সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান, উত্তর সভাপতি সামশুদ্দিন বাদল প্রমুখ।

সভায় দ্বিতীয় অধিবেশনে উপস্থিতি নেতা কর্মীদের সর্বসম্মতিক্রমে নুরুল আমিন চৌধুরীকে সভাপতি, হেলাল উদ্দিনকে সি.সহ-সভাপতি, আবছার কামাল ছিদ্দীকিকে সাধারন সম্পাদক, জুহুর আলম চৌধুরীকে সাংগঠনিক সম্পাদক ঘোষনা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *