বগুড়া পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজে আলোচনা সভা

মাসুম বিল্লাহ, বগুড়া জেলা প্রতিনিধিঃ
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মদিন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বগুড়া পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও শিশু শিক্ষার্থীদের নিয়ে কেক কর্তন করা হয়েছে। পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ শাহাদৎ আলম ঝুনুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন মানবিক নেতা। পাকিস্তানী শোষক সরকারের কাছ থেকে এদেশের সাধারণ মানুষকে মুক্ত করতে সংগ্রাম করেছেন। জেলখানায় বসে তিনি লিখে ছিলেন ‘আমার আবার জন্মদিন’। জেল থেকে মুক্ত হওয়ার পর এক বিদেশী সাংবাদিক তাকে বলেছিলেন আজ আপনার জন্মদিন, সেদিন তিনি বলেছিলেন ‘এদেশ স্বাধীন না হওয়া পর্যন্ত আমি আমার জন্মদিন পালন করব না’। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর তার জন্মদিনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী তাকে শুভেচ্ছা জানাতে এসছিলেন, সেদিন ছুটি ঘোষনা করেছিলেন। সেদিনও তিনি বলেছেন এদেশ গঠন না হওয়া পর্যন্ত আমার জন্মদিনে কোন ছুটি থাকবে না। ১৯৭৫ সালের ১৭ মার্চ ধানমন্ডিতে হাজার হাজার মানুষ বঙ্গবন্ধুকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে এসছিল। তিনি তাদের শুভেচ্ছা গ্রহন করেছেন। তাদের সেদিন বলেছিলেন দেশ গঠনে সকলে আত্মনিয়োগ করতে হবে। সকলে মিলে স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে পারবে। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গবেষনা করতে হবে, পড়তে হবে তার লেখাগুলো। বঙ্গবন্ধুর ন্যায় মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হয়ে গড়ে উঠতে হবে আগামী প্রজন্মকে। যাতে করে তারা সাধারণ মানুষের কষ্ঠ বুঝতে পারে, মানুষের সুখে দুখে তাদের পাশে দাঁড়াতে পারে। দেশ গঠনে নিজেদের আত্ম নিয়োগ করতে পারে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোতাহার হোসেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সহকারী প্রধান শিক্ষক ইয়াছমিন সুলতানা, কলেজ শাখার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান, কলেজ শাখা শিক্ষক প্রতিনিধি শহীদুল ইসলাম, প্রাথমিক শাখার ইনচার্জ সোনার উদ্দিন, স্কুল শাখার শিক্ষক প্রতিনিধি আনজুয়ারা খাতুন, প্রভাষক নাজনীন আরা, সিনিয়র শিক্ষক ফেরদৌস আলম, সহকারী শিক্ষক শামীম আলম। অনুষ্ঠানে ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী আইরা রহমান নদী ‘ডাচ্ বাংলা ব্যাংক – প্রথম আলো ’ আয়োজিত বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড-২০২২ প্রাইমারি ক্যাটাগরিতে চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় ও জেবুন্নেসা হাশেম পুরস্কারও অর্জন করায় তাকে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সম্মাননা তুলে দেন প্রধান অতিথি জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম।

সহকারী শিক্ষক আল আমিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর পছন্দের গান ‘আমার সাধ না মিটিলো’ পরিবেশন করে শ্রেণির শিক্ষার্থী নাশিতা, বাঁশির সুরে দেশ গান সূর্যোদয়ে তুমি, সূর্যাস্তেও তুমি পরিবেশন করেন দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ইফতেখার প্রীতম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রচিত অসমাপ্ত আত্মজীবনীর অংশ বিশেষ পাঠ করেন দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী তামিম আহসান ও কারাগারের রোজনামচার অংশ বিশেষ পাঠ করেন দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী মাহফুজার রহমান, কবিতা আবৃত্তি করেন শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান ও জান্নাতুল ফেরদৌস মৌ। অনুষ্ঠানে প্রধান জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনে কেক কর্তন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.