ফরিদপুরে দেবরের হামলায় ভাবী হাসপাতালে

মাহবুব পিয়াল,ফরিদপুর:
ফরিদপুরের নগরকান্দায় দেবরের হামলায় আহত হয়ে ভাবী হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার লস্করদিয়া ইউনিয়নের গোড়াইল গ্রামে। এ ব্যাপারে আজ সোমবার সকালে মেহেদী হাসান বাদী হয়ে নগরকান্দা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

জানাগেছে, গোড়াইল গ্রামের শাহজাহান মাতুব্বর টাকা পায় তার আপন ছোট ভাই মোশারফ মাতুব্বরের নিকট। দীর্ঘদিন সেই টাকা দিতে অপারগ হয়ে ছোট ভাই মোশারফ পালিয়ে এলাকা ছেড়ে ঢাকায় অবস্থান নেয়। ছোট ভাই মোশারফকে না পেয়ে শাহজাহান তার বড় ভাই নাজেম মাতুব্বরকে উক্ত টাকার জন্য চাপ দেয়। বড় ভাই টাকা দিতে অস্বীকার করে। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে রবিবার রাত ১০টার দিকে শাহজাহান তার দলবল হারুন শেখ, বদিউজ্জামান, জুয়েলসহ ৭/৮ জন লোহার রড, রামদা, লাঠিসোটা নিয়ে বড় ভাই নাজেম মাতুব্বরের উপর হামলা চালায়। এ সময় তাকে বাচাতে তার স্ত্রী হাবীবা বেগম(৪৫) এগিয়ে গেলে তাকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। প্রতিবেশী এসে আহত অবস্থায় হাবীবাকে উদ্ধার করে নগরকান্দা উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে।

নাজেম মাতুব্বর বলেন, ওরা দু’জনই আমার ছোট ভাই। একজন টাকা পাবে অন্যজনের কাছে। টাকা দিতে না পেরে শাহজাহানের ভয়ে মোশারফ এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। বড় ভাই হয়ে আমি ওকে ধৈর্যধারন করতে বলেছি। তাতেই শাহজাহান আমার নিকট টাকা দাবী করছে। তিনি আরো বলেন, আমার উপর ওরা হামলা করে। আমার স্ত্রী ঠেকাতে গেলে তাকে ওরা এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে। অভিযুক্ত শাহজাহান অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার বড় ভাই উল্টো আমাকে থাপ্পড় মেরেছে। থানা অফিসার ইনচার্জ হাবিল হোসেন বলেন, উভয় পক্ষই লিখিত অভিযোগ করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *