২৪ ঘণ্টায় ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি ৯৬ শিশু

সাব্বির আলম বাবু, ভোলাঃ
ভোলায় বেড়েছে শীতজনিত রোগের প্রকোপ। প্রতিদিনিই ঠান্ডা, সর্দি, কাশি, নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়াসহ শীতজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে শিশু রোগী। রোগীদের চাপ বেড়ে যাওয়ায় তাদের চিকিৎসা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন ডাক্তার ও নার্স। বেড সংকট থাকায় একটি বেডে গড়ে দুই/তিনজন করে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গত এক মাসে জেলায় শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন প্রায় ৮শ রোগী। যাদের মধ্যে নিউমোনিয়া আক্রান্ত ছিল ১৫৪ জন। এদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে তিন শিশু। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছে আরও ৯৬টি শিশু। এদের মধ্যে নিউমোনিয়া আক্রান্ত ৪৬ জন। আবহাওয়া পরিবর্তন জনিত কারণে শিশুদের নিউমোনিয়া ও ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়ছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তবে তাদের প্রয়োজনীয় সেবা দিচ্ছেন তারা। শিশুদের শীতজনিত রোগের প্রকোপ বাড়ায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন অভিভাবকরা।

ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা কয়েকজন রোগীর অভিভাবকরা জানালেন, বিগত সময়ের চেয়ে এবার শীতের প্রকোপ কিছুটা বেশি। ফলে আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। শিশুদের বাড়তি সতর্কতায় রাখলেও রেহাই পাচ্ছে না রোগ থেকে। ঘরে ঘরে ছড়িয়ে পড়েছে শীতজনিত রোগ। ভোলা সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডের ইনচার্জ সিনিয়র স্টাফ নার্স মৌসুমি বলেন, হাসপাতালে যেসব রোগী ভর্তি হচ্ছে তাদের বেশিরভাগই নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত। এখনো হাসপাতালে রোগীর চাপ। আমরা তাদের চিকিৎসা দিয়ে যাচ্ছি।

এ ব্যাপারে ভোলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা. নিরুপন সরকার সোহাগ জানান, শিশু রোগীদের চাপ বাড়ছে। তবে আমাদের চিকিৎসক এবং নার্সরা রোগীদের প্রয়োজনীয় সেবা দিচ্ছেন। হাসপাতালে পর্যাপ্ত ওষুধ সরবরাহ রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *