মোংলা বন্দর চ্যানেলে দুর্ঘটনার কবলে ফার্নেস অয়েলবাহী জাহাজ

শেখ সোহেল,বাগেরহাট:
বঙ্গোপসাগরের সুন্দরবন উপকূলে মোংলা বন্দর চ্যানেলের ১৫ নম্বর বয়া এলাকায় ফার্নেস অয়েলবাহী ‘এমটি মনোয়ারা’ নামের একটি জাহাজ দুর্ঘটনায় পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে একটি ডুবো জাহাজের সঙ্গে (Wreck Ocean Wave) ধাক্কা লেগে জাহাজটির পানির ট্যাংকার ছিদ্র হয়ে যায়। তবে জাহাজটির তেলের ট্যাংকারগুলো সুরক্ষিত রয়েছে বলে জানিয়েছে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ।

এদিকে দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজ পর্যবেক্ষণ ও নাবিকদের উদ্ধারে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে কোস্টগার্ডের জাহাজ শহীদ মুনসুর আলী। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের অয়েল স্পিল রেসপন্স ভেসেলও ঘটনাস্থলে রওনা দিয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত জাহাজটিতে দেড় হাজার মেট্রিক টন ফার্নেস অয়েল রয়েছে। চট্টগ্রামের আবুল কালাম অয়েল সাপ্লাই লিমিটেডের মালিকানাধীন জাহাজটি তেল নিয়ে খুলনার দৌলতপুর যমুনা তেল ডিপোতে যাচ্ছিল। শুক্রবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রাম থেকে জাহাজটি খুলনার দৌলতপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

জাহাজের মালিক আবুল কালাম বলেন, ‘ক্যাপ্টেন ফিরোজের সহযোগিতায় আমরা জাহাজটিকে খুলনার উদ্দেশ্যে পাঠাই। ঘটনাস্থলে ডুবো জাহাজের মার্কিং না থাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। ডুবো জাহাজের ধাক্কায় আমাদের পানি সংরক্ষণের ট্যাংকার ছিদ্র হয়েছে। আল্লাহর রহমতে তেলের কোনো ট্যাংকারের ক্ষতি হয়নি। একটি খালি জাহাজে কিছু তেল অপসারণ করে। দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজটিকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করব। এজন্য একটি খালি জাহাজ পাঠানো হয়েছে।’

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দীন বলেন, ‘একটি ডুবো জাহাজের ধাক্কায় তেলবাহী একটি জাহাজের একটি অংশ ফেটে গেছে। ফেটে যাওয়া অংশটিতে পানি ছিল। ওই জাহাজের তেলের ট্যাংকারগুলো এখনও স্বাভাবিক রয়েছে। আমরা মালিক পক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তারা খালি জাহাজ পাঠিয়ে কিছু তেল অপসারণ করে জাহাজটিকে নিরাপদে সরিয়ে নেবে। তবে মোংলা বন্দরের যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *