সোনাইমুড়ীতে একটি অসহায় পরিবারকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

খোরশেদ আলম শিকদার, নোয়াখালী:
নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে প্রতিহিংসা বশবর্তী হয়ে একটি অসহায় পরিবারকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে উপজেলার ৬নং নাটেশ্বর ইউপির মির্জানগর গ্রামের কাজী খায়েজ আহমেদ এর ছেলে কাজী ফয়েজ আহমেদের বিরুদ্ধে।

মামলা ও স্হানীয় সূত্রে জানাযায়, খায়েজ আহমেদ এর ছেলে ফয়েজ আহমেদ একই গ্রামের প্রতিবেশী দিনমজুর তোফায়েল আহমেদ গংদের বিরুদ্ধে মোবাইল ও টাকা ছিনতাই সহ বেশ কয়েকটি অভিযোগ এনে গত ০৩ অক্টোবর/২০২১ বিজ্ঞ নোয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে ৬ এ (১৭২/২০২১) নং একটি পিটিশন মামলা দায়ের করেন। ভুক্তভোগী ও স্হানীয়রা জানান, বিগত ৬/৭ মাস পুর্বে খায়েজ আহমেদ এর ছেলে শিব্বির আহমেদ বিয়ের ডেকোরেশনের মালামাল সহ একটি নসিমন গাড়ি বাড়িতে প্রবেশ করতে চায়। রাস্তাটি কাঁচা ও ফাটল ধরে ভেঙে যাওয়ায় তোফায়েল আহমেদ প্রবেশ করতে বাধা দেয়। তাদেরকে বলে আপনারা মালামাল গুলো হাতে করে নিয়ে যান। গাড়ি চালালে রাস্তাটি ভেঙে পড়বে, এতে উভয়ের মধ্যে কথা কাটা কাটি হলে ফয়েজ আহমেদ তোফায়েলদের দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়। এই ঘটনার ৬/৭ মাস পর প্রতিহিংসা বশত ফয়েজ আহমেদ হতদরিদ্র তোফায়েলদের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে বলে স্হানীয়রা জানায়। এ বিষয়ে মামলার ১নং স্বাক্ষী সহ ৮জনের সাথে আলাপকালে জানাযায়, বিগত ৬/৭মাস পুর্বে নসিমন প্রবেশ নিয়ে কথা কাটা কাটি ছাড়া আর কোন ঘটনাই ঘটেনি। এগুলো একটা কাল্পনিক অভিযোগ। আমাদের কেনো স্বাক্ষী করা হলো তা আমরা জানিনা। মামলায় উল্লেখিত ৬নং স্বাক্ষী বাদীর পিতা খায়েজ আহমেদ জানান, আমাকে একদিন মরতে হবে, আমি মিথ্যা বলতে পারবোনা। মোবাইল ছিনতাই, টাকা নেওয়া বা চাঁদাদাবি করা সম্পুর্ন মিথ্যা। আমি আমার ছেলেকে বলবো এই মামলাটি প্রত্যাহার করার জন্য।

ভুক্তভোগী তোফায়েল আহমেদ বলেন, আমি দিনমজুরি করে সংসার চালাতে অনেক কষ্ট হয়, কি কারণে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা করলো জানিনা। সুষ্ঠ তদন্ত করে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *