বোরহানউদ্দিনে প্রতিপক্ষের হামলায় দুই প্রার্থীসহ আহত ২০

সাব্বির আলম বাবু,  ভোলাঃ
চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার পক্ষিয়া ইউনিয়নে প্রচার প্রচারণাকে কেন্দ্র করে দুই স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর হামলা-মারধরসহ মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়েছে। এতে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। প্রতিবাদে শনিবার দুপুরে এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলাউদ্দিন সরদার জানান, শনিবার সকালে তিনি পক্ষিয়া ইউনিয়নের কাইমিজি বাড়ি এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণায় যান। এ সময় তার ওপর প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী সমর্থকরা হামলা চালায়। এসময় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর হাত, পায়ে এবং মাথায় গুরুতর জখম করা হয়। এছাড়াও তার  মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। সন্ত্রাসীদের বাধার মুখে তিনি হাসপাতালে না গিয়ে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন। এদিকে তাঁর ওপর এই হামলার প্রতিবাদে এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা।

অপরদিকে একই ইউনিয়নের অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী কাঞ্চন মাঝি ইউনিয়নের বোরহানগঞ্জ বাজার এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণার সময় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের হামলার শিকার হয়ে গুরুতর আহত হন। এ সময় তাঁর সাথে থাকা আরও ১০ নেতাকর্মী আহত হন। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ গুরুতর আহতদের বোরহানউদ্দিন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।তবে এসব হামলার ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেন আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী নগর হালদার। এই হামলার বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না বলেই দাবী করেন।

বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিন ফকির বিপিএম জানান, বোরহানগঞ্জ বাজার এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণার সময় হামলার ঘটনায় ৪ জনের নামে ও অজ্ঞাত ২০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। তবে কেউ আটক হয়নি।এছাড়া স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আলাউদ্দিনের ওপর হামলার ঘটনায় এখনও থানায় কোনও অভিযোগ আসেনি বলেও জানান ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *