বগুড়ায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে এইচ এস ছি পরীক্ষার্থী নিহত

মাসুম বিল্লাহ, বগুড়া জেলা প্রতিনিধি:
বগুড়া সদর উপজেলায় দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে ১৮ বছর বয়সী মোহন নামে এক এইচএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। এছাড়াও মারধরের শিকার হয়ে আহত হয়েছেন মোহনের দুই বন্ধু। সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোহনের মৃত্যু হয়।

এর আগে সোমবার রাত পৌনে ১১টার দিকে শহরের খান্দার এলাকায় ছুরিকাঘাতের শিকার হন মোহন। একইসঙ্গে লাঠিসোটা দিয়ে মোহনের সঙ্গে থাকা লিখন ও বাপ্পি নামে দুইজনকে বেধড়ক পেটানো হয়। লিখন ও বাপ্পি দুজনই মোহনের বন্ধু। তারা শজিমেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। নিহত মোহন শহরের ফুলতলা এলাকার শুকুর আলীর ছেলে এবং বগুড়া সরকারি কলেজ থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। আহত লিখন ও বাপ্পি ফুলতলা চক কানপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

নিহতের দুই ভাই শাহীন ও রমজান জানান, মোহন খান্দার এলাকা থেকে তার দুই বন্ধু লিখন ও বাপ্পিকে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে ফুলতলায় ফিরছিলেন। পথে খান্দার সিএন্ডবি গোডাউনের সামনে তাদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে দুর্বৃত্তরা। ওই সময় দুর্বৃত্তরা লাঠিসোটা দিয়ে মোহন, বাপ্পি ও লিখনকে মারধর করতে থাকেন।

একপর্যায়ে মোহনসহ তার দুই বন্ধুকে খান্দার সিএন্ডবি গোডাউন এলাকায় এক ক্লাবঘরের সামনে নেয়া হয়। সেখানে তাদের লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটানোর পর মোহনকে ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে আহত তিনজনকে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে শজিমেক হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। শজিমেক হাসপাতালে ঘণ্টাখানেক চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় মোহনের মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছে। লাশ শজিমেকে হাসপাতালের মর্গে রয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published.