শ্রীবর্দীতে ১১ প্রর্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল

শাহাদাত হোসেন সোহাগ, শেরপুর:
শেরপুরের শ্রীবরদীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৬৮ জনের মধ্যে ৭ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৪৪ জনের মধ্যে ৩ জন ও সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৩৪ জনের মধ্যে ১ জনের মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পর বাতিল হয়েছে। ২৯ নভেম্বর সোমবার মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে ঋণ খেলাপিসহ নানা কারণে এসব মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে ওইসব তথ্য পাওয়া যায়।

জানা যায়, শ্রীবরদী উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। বাছাইয়ে ঋণ খেলাপিসহ নানা কারণে চেয়ারম্যান পদে ৭ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। এর মধ্যে শ্রীবরদী সদর ইউনিয়নে মাহমুদুল হক রুবেল ও ছামিউল হক, গোসাইপুর ইউনিয়নে রশিদ আহমেদ ফেরদৌস, কাকিলাকুড়া ইউনিয়নে নজিবুদৌলা ও ইসব ইবনে সরকার, রানীশিমুল ইউনিয়নে আব্দুর রশিদ ও কুড়িকাহনীয়া ইউনিয়নে হাফিজুর রহমান। সংরক্ষিত সদস্য পদে ১ জন ও সাধারন সদস্য পদে ৩ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।

শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার এনএম সাজ্জিল সাদিক জানান, উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের দায়িত্বে আছেন ৪ জন রিটার্নিং অফিসার। প্রার্থীরা পৃথক পৃথক রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে জমা দেন মনোনয়ন পত্র। এখানে শ্রীবরদী সদর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৪ জন, সাধারন সদস্য পদে ৪১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। ভেলুয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১০ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৩ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৯ জন মনোনয়ন পত্র জমা দেন। গোশাইপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৯ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩১ জন প্রার্থী মনোয়নপত্র জমা দেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার হুমায়ুন দিলদার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন কাকিলাকুড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৫ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৫ জন। সিংগাবরুনা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১১ জন, সাধারন সদস্য পদে ৪১ জন প্রার্থী মনোয়নপত্র জমা দেন । উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ও সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার রহুল আলম তালুকদার কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দেন, গড়জরিপা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৯ জন, সাধারন সদস্য পদে ৪৫ জন। কুড়িকাহনিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৮ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩৭ জন মনোনয়ন পত্র জমা দেন। এছাড়াও উপজেলা শিক্ষা অফিসার ও সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার জিয়াউল হক নিকট মনোনয়ন পত্র জমা দেন রানীশিমুল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১২ জন, সাধারন সদস্য পদে ৪৪ জন মনোনয়ন পত্র জমা দেন। তাতিহাটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৩ জন, সাধারন সদস্য পদে ৩১ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দেন। আজ মঙ্গলবার মনোয়নপত্র যাচাই-বাছাই সম্পন্ন হয়। এতে ওঠে আসে এমন তথ্য।

শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার এনএম সাজ্জিল সাদিক বলেন, তবে বাতিলকৃতরা আপিল করতে পারবেন। মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ৬ ডিসেম্বর। ২৬ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.