৪৩তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালন

ইবি প্রতিনিধি:
২২ নভেম্বর ৪৩তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনাসভা, কেক কাটা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

দিবসটি উপলক্ষ্যে আজ ২২ নভেম্বর সকাল ১০টা ৩০মিনিটে প্রশাসন ভবন চত্বরে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম এবং বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান। এসময় তাঁর সাথে ছিলেন ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া এবং রেজিস্ট্রার (ভারঃ) মু. আতাউর রহমান। একই সময়ে প্রভোস্টগণ স্ব-স্ব হলে জাতীয় পতাকা ও হল পতাকা উত্তোলন করেন।

পতাকা উত্তোলন শেষে শান্তির প্রতীক পায়রা ও আনন্দের প্রতীক বেলুন উড়িয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম ৪৩তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান, ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, রেজিস্ট্রার (ভারঃ) মু. আতাউর রহমানসহ সকল পর্যায়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

কর্মসূচি উদ্বোধন শেষে প্রশাসন ভবন চত্বর থেকে উপাচার্যের নেতৃত্বে উপ-উপাচার্য, ট্রেজারার ও রেজিস্ট্রার (ভারঃ)-এর উপস্থিতিতে বর্ণাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পর্যায়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের প্রধান-প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বাংলা মঞ্চে এসে শেষ হয়।

র‌্যালি শেষে ৪৩তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে বাংলা মঞ্চে আলোচনাসভা ও কেক কাটা হয়। অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান ও ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন রেজিস্ট্রার (ভারঃ) মু. আতাউর রহমান। সভাপতিত্ব করেন ৪৩তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো: জাহাঙ্গীর হোসেন। এরপর বাংলা মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়।

দিবসটি উপলক্ষে বাদ যোহর কেন্দ্রীয় মসজিদ ও হল মসজিদসমূহে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কর্মসূচিসমূহে অংশগ্রহণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *