বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে গাজীপুরের নূহাশ পল্লীতে হুমায়ুন আহমেদের জন্মদিন পালন

টি.আই সানি, গাজীপুর প্রতিনিধি:
নন্দিত কথা সাহিত্যিক হুমায়ুন আহমেদের ৭৩তম জন্মদিন নানা আয়োজনে পালন করা হয়েছে। রাত ১২টা ১ মিনিটে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে জন্মদিনের আয়োজন শুরু করে নূহাশ পল্লীর আয়োজকবৃন্দ। সকালে হুমায়ুন আহমেদের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন, দুই ছেলে নিশাত ও নিনিতসহ লেখকের ভক্তদের নিয়ে কেক কাটেন। এর আগে লেখকের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন, কবর জিয়ারত ও আতœার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়।

এ সময় সাংবাদিকদের সাথে আলপকালে মেহের আফরোজ শাওন বলেন, যারা হুমায়ূনকে ভালোবাসেন, তাদের অনেকেই তাকে নিয়ে কাজ করতে চান। তবে একটা অনুরোধ করছি, তাকে নিয়ে যা ইচ্ছে তা কেউ করবেন না। লেখক হুমায়ূন আহমেদ বাংলাদেশের সম্পদ। তাকে নিয়ে ভালো চর্চা হোক। তার সৃষ্টিকর্ম নিয়ে যেনতেনভাবে কাজ করার চেষ্টা বা তাকে নিয়ে হঠাৎ করে একটা সিনেমা বানিয়ে ফেলা, একটা বই লিখে ফেলা বিষয়টি নিয়ে আমার খুব খারাপ লেগেছে।

নুহাশপল্লীর ব্যবস্থাপক সাইফুল ইসলাম বুলবুল জানান, শুক্রবার রাইে লেখকের স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন তার দুই ছেলেকে নিয়ে নুহাশপল্লীতে আসেন। রাত ১২টা ১ মিনিটে নুহাশপল্লীর কর্মচারীরা ১০০১টি মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে জন্মদিনের কার্যক্রম শুরু হয়। সকাল থেকে হুমায়ুন আহমেদের ভক্তরা ছুটে আসছেন নূহাশ পল্লীতে। হুমায়ুন স্যার’র কবরে ফুল দিয়ে গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করছেন নানা শ্রেণি পেশার মানুষ।

হুমায়ূন ভক্তদের সংগঠন ‘হিমু পরিবহণ, সংগঠনের সমন্বয়ক মুহাম্মদ লিংকন বলেন, হুমায়ুন স্যারকে না দেখার আক্ষেপটা আমৃত্যু রয়ে যাবে। স্যারের জন্মদিন উপলক্ষে সকালে একদল হিমু পরিবহণ তাদের প্রিয় লেখকের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেনকরেন। যাত্রা পথে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্যান্সার সচেতনমূলক লিফলেট বিতরণ করে তারা। বিকেলে গাজীপুর শহরের রাজবাড়ী মাঠ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে প্রাঙ্গণে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদেরকে নিয়ে কেক কাটবে তারা এবং সন্ধ্যায় মোমবাতি প্রজ্জলন এবং হুমায়ুন আহমেদের জীবনী ও কর্মের ওপর আলোচনা করবে।

উল্লেখ্য, ১৯৪৮ সালের ১৩ নভেম্বর নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার কুতুবপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন হুমায়ূন আহমেদ। ২০১২ সালের ১৯ জুলাই তিনি আমেরিকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। পরে তাকে গাজীপুরের নুহাশপল্লীর লিচুগাছ তলায় দাফন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *