ইবিতে সিনিয়র সাথে জুনিয়র মারামারি

ইবি প্রতিনিধি:
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি)সিনিয়র সাথে জুনিয়র মারামারি ঘটনা ঘটেছে । বিভাগের আরিফুল ইসলাম ২০১৭-১৮ সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সেশন এবং মারুফ ইসলাম ২০১৯-২০সেশন শিক্ষার্থীদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে আজ। শুক্রবার (১২নভেম্বর ) বেলা ১১ টার দিকে সাদ্দাম হোসেন হলের সামনে খেলার মাঠে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ও লালন শাহ হলের আবাসিক শিক্ষার্থী আরিফ, একই বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের মারুফ ও তার বন্ধু প্রিন্স একসঙ্গে ছিলেন। কথা বলার এক পর্যায়ে মারুফ অন্যমনস্ক হলে আরিফ তার গালে-মুখে হাত দিয়ে তার দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করেন। এতে মারুফ ক্ষিপ্ত হয়ে আরিফকে মারতে উদ্যত হন। পরে প্রিন্স তাকে আটকান এবং সেখান থেকে নিয়ে যান। তবে মারুফের দাবি, আরিফ থাকে থাপ্পড় মারার কারণে ক্ষিপ্ত হয়েছিলেন।

পরে মারুফ তার বন্ধু ও সিনিয়রদের ডাকেন। এসময় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিমুল, ২০১৮-১৯ শিক্ষবর্ষের হলের মাসুদ, রিয়ন, মারুফের বন্ধু প্রিন্স, ফয়সাল, ধ্রুবসহ অন্তত ৩০ জন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। একপর্যায়ে মারুফের বন্ধু ধ্রুবসহ সিনিয়র কয়েকজন আরিফ কে এলোপাতাড়ি পেটাতে থাকেন। এরপর অভিযুক্তরা বাঁশ দিয়ে আঘাত করতে আসে। পরে ছাত্রলীগ নেতা হোসাইন মজুমদার ঠেকাতে গিয়ে হাতে আঘাতপ্রাপ্ত হন। পরে ছাত্রলীগ নেতা বিপুল হোসেন খান, হোসাইন মজুমদারসহ সিনিয়রদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, এটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা, আগামীকাল প্রক্টরিয়াল অফিসে তাদের ডেকে আনা হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *