সাবেক বিচারপতি সিনহার ১১ বছরের কারাদন্ড, জেলে থাকতে হবে ৭ বছর

নিউজ ডেস্ক:
চার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের মামলায় দুটি ধারায় সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহাকে ১১ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। তবে তাকে জেলে থাকতে হবে ৭ বছর। এর যুক্তিও দেখানো হয়েছে রায়ে। দেশের ইতিহাসে এই প্রথম সাবেক কোনো প্রধান বিচারপতির সাজা হলো। ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪-এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম মঙ্গলবার দুপুরে আলোচিত মামলাটির রায় দেন।

নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে ২০১৭ সালে দেশ ছাড়েন সে সময়ের প্রধান বিচারপতি সিনহা। দেশ ছাড়ার সময় বলেছিলেন, এক মাসের ছুটির জন্য বিদেশ যাচ্ছেন তিনি। ছুটি শেষে অবশ্যই দেশে ফিরে আসবেন। পরে সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে পদত্যাগপত্র পাঠিয়ে দেন সিনহা।

প্রথমে কিছুদিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করে পরে কানাডায় বসবাস করতে শুরু করেন সিনহা। তার বিদেশ যাত্রার দুই বছর পর মামলাটি করে দুদক। এই মামলায় মোট আসামি করা হয় ১১ জনকে। রায়ে সাবেক ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক এমডি এ কে এম শামীমকে চার বছর কারাদণ্ড ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তাকে আরও ৬ মাস কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া সাবেক ফারমার্স ব্যাংকের অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক চিশতী (বাবুল চিশতী), রণজিৎ চন্দ্র সাহা ও তার স্ত্রী সান্ত্রী রায়কে ৩ বছর কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তাদের আরও ৩ মাস কারাগারে থাকতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *