সরকার নিজের পকেট ভারি করার জন্য তেলের দাম বাড়িয়েছে- মির্জা ফখরুল

আল ফয়সাল অনিক,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:
বিনা ভোটে নির্বাচিত এই সরকার সরকারের কোন জবাবদিহিতা নেই, সেজন্য নিজেদের পকেট ভারি করার জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় সব কিছুর দাম বৃদ্ধি করছে অভিযোগ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে ট্রাক পরিবহন শ্রমিকদের কর্মসূচীকে আমরা সমর্থণ জানাবো।

বৃহস্পতিবার বিকাল ৪ টায় ঠাকুরগাঁও শহরের কালিবাড়ি নিজ বাসভবন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রাওনা হওয়ার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এ কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল।

নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্য বৃদ্ধি সম্পর্কে মির্জা ফখরুল বলেন, একদিকে দ্রব্যমূল্যোর উদ্ধগতির কারণে দেশের মানুষ হিমশিম খাচ্ছে সেই সময়ে এই জ্বালানী তেলের দাম বাড়ানো দ্রব্যমূল্যেকে আরো বৃদ্ধি করবে। দেশের সামগ্রীক অর্থনীতির উপর একটা প্রচন্ড চাপ সৃষ্টি হবে। সেই সাথে মানুষের জীবনের যে একটা ক্রয় ক্ষমতা সেটা হ্রাস পাবে। যে কারণে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে একটা প্রভাব পড়বে।

তিনি বলেন, যে সরকার জনগনের কাছে জবাবদিহি করে না, পার্লামেন্ট এ জবাবদিহি করে না, নিজেদের খুশি মত যা ইচ্ছা করার করে, সে সরকারের কাছে জনগণের কি মূল্য থাকতে পারে। আমরা জানি যে এলপিজি গ্যাস কারা আমদানি করে, ফুয়েল কারা আমদানি করে। সব কিছু মিলে এমন একটা অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে যেখানে সাধারণ মানুষের জীবন দূর্বিসহ হয়ে উঠেছে। এই সরকার একটি দমনমূলক আচরন করছে।

টিসিবি’র পন্যের দাম হঠাৎ করে বৃদ্ধি করে সাধারণ মানুষের উপর নির্যাতন বাড়ানো হল অভিযোগ করে তিনি বলেন, টিসিবি’র পন্য তো সাধারণ মানুষের জন্য। এটার দাম বৃদ্ধি করে সাধারণ মানুষের উপর নির্যাতন করা হচ্ছে। বিদ্যুৎ এর দাম প্রতি বছর বৃদ্ধি করে আজকে মানুষের অবস্থা প্রায় শেষ করে দিয়েছে। ট্রাক শ্রমিকদের কর্মসূচিকে আমরা সর্মথন করি। আর আমরা কোন কর্মসূচি দিব কি না তা ঢাকায় গিয়ে জানাতে পারবো।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আল মামুন আলম, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আমিন, অর্থ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরিফসহ বিএনপির অন্য সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *