ধান কাটাকে কেন্দ্র করে নারীকে বেদম মারপিট, থানায় অভিযোগ

কাজী শাহ্ আলম, লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ধান কাটাকে কেন্দ্র করে নারীকে বেদম মারপিট করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন,উক্ত নারী বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন,থানায় অভিযোগ।

প্রাপ্ত অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, উপজেলার রমনীগঞ্জ গ্রামের খছমুদ্দিন এর সাথে এইক এলাকার মন্তাজ উদ্দিনের ছেলে মোজাম্মেল হোসেনর জায়গা জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। গত ৩১ অক্টোবর খছমুদ্দিন তার স্ত্রী আছমা বেগম সহ পাকা ধান কাটতে গেলে প্রতিপক্ষের লোকজন খছমুদ্দিন ও তার স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি মার ডাং ও ফুলা জগম করে। পরে এলাকাবাসী খছমুদ্দিনের স্ত্রী আছমা বেগম কে উদ্ধার করে হাতীবান্ধা হাসপাতালে ভর্তি করায়। অবস্থার বেগতিক দেখায় কর্তব্যরত চিকিৎসা আছমা বেগম (৫০) কে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। বর্তমানে তিনি রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। তার অবস্থা আশংকাজনক।

খছমুদ্দিন বলেন,৫৭৪ নং খতিয়ানের ২০ দাগে ১ একর ৮৩ শতক জমি নিয়ে এ বিরোধ। উক্ত জমি আমি আমার পৈত্তিকসূত্রে প্রাপ্ত হয়ে আমন ধানের চাষাবাদ করি এবং ধান পাকায় কাটতে গেলে মোজাম্মেল গং আমার ও স্ত্রীর উপর হামলা চালায়। খছমুদ্দিন বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত মোজাম্মেল হোসেন বলেন,আমাদের চাষাবাদকৃত জমির ধান কাটতে গিয়ে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *