পরিচয়পত্রহীন প্রিজাইডিং অফিসারের সাংবাদিকদের সাথে দূর্ব্যবহার

এস কে সোহেল,বাগেরহাট:
 ০২ নভেম্বর, সোমবার সকাল সাড়ে দশটা। বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট গ্রহন চলছে। ৬ নং ওয়ার্ডের দক্ষিন কালেখার বেড় প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রবেশ করতেই মধ্য বয়সী এক ব্যক্তির বাঁধা। কেন্দ্র এলাকায় প্রবেশ করা যাবে না। সংবাদকর্মী পরিচয় দিলে তিনি নিজেকে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা পরিচয় দেন। তবে তার কাছে রিটার্নিং কর্মকর্তা প্রদত্ত কোন পরিচয় পত্র ছিল না। নাম জানতে চাইলে তিনি আরো বেশি রেগে যান। বলেন এখান থেকে বের হয়ে যান। পরবর্তীতে তার পরিচয় পত্র আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি আরো বেশি ক্ষিপ্ত হন। দ্রুত গতিতে তার কক্ষে যান, কক্ষে প্রবেশ করে একটি আলমারি থেকে সাদা পরিচয় পত্র বের করেন। নিজ হাতে ফাঁকা পরিচয় পত্রে নিজের নাম ঠিকানা লেখেন। ওই ফাঁকা পরিচয় পত্রে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিল স্বাক্ষরও ছিল না। সিল স্বাক্ষর ছাড়া সাদা পরিচয় পত্র কেন, জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের কোন সদুত্তর দিতে পারেন নি। পরে এক পর্যায়ে তিনি সাংবাদিকদের ক্ষমা চান। এছাড়া এই কেন্দ্রের ভোট কক্ষে থাকা পোলিং অফিসার ও এজেন্টদের অধিকাংশের পরিচয় পত্র ছিল না।

পরিচয় পত্র না থাকার কথা স্বীকার করে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান শেখ বলেন, সকালে এসে ব্যস্ত হয়ে পড়ায় সবাইকে পরিচয় পত্র দিতে পারিনি। আপনারা এসব নিয়ে কথা বলেন না।

রামপাল উপজেলা নির্বাচন কর্মকতা মোঃ জাকারিয়া বলেন, বিষয়টি জেনে আমি ঘটনাস্থলে এসেছি। পরিচয় পত্র না থাকার বিষয়টি আমরা ক্ষতিয়ে দেখছি। তবে মোঃ মিজানুর রহমান ওই কেন্দ্রের বৈধ কর্মকর্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *