ঝালকাঠিতে আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ

আবু সায়েম আকন, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ
ঝালকাঠির রাজাপুরে আদালতের অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পারিবারিক কবরস্থান সহ বাড়ির জমি দখল করার অভিযোগ উঠেছে একটি গ্রুপের উপরে। শনিবার (৩০ অক্টোবর) রাজাপুর প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে নিজের পরিবার ও সম্পত্তি বাঁচাতে প্রশাসনের সু-দৃষ্টি কামনা করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মৃত আহছান উল্লাহ হাওলাদের ছেলে বাইপাস এলাকার বাসিন্দা মো. মোস্তফা ও তার স্ত্রী কামরুন নাহার।

লিখিত বক্তব্যে মো. মোস্তফা বলেন, ১৯৯৪ ও ১৯৯৬ সালে রাজাপুর বাইপাস মোড়ের কাঠালিয়া সড়কে সাহাবুদ্দীন মৃধার ও সেলিম গং এর কাছ থেকে কাছ থেকে মোট ২৯ শতক জমি ক্রয় করে বসতঘর নির্মান করা হয় এবং বাকী জমিতে দোকান ঘর নির্মান করে ভাড়া দেওয়া সহ, পারিবারিক কবরস্থান নির্মান করা হয়। যেখানে আমার মায়ের কবর রয়েছে। কিন্তু প্রতিপক্ষ সরোয়ার তালুকদারের নেতৃত্বে এনামুল হক স্বপন, মনির বিশ্বাস সহ একদল সন্ত্রাসী বাহিনী গত ১০ সেপ্টেম্বর ভোররাতে জোড়পূর্বক আমার বসত বাড়িতে ডুকে হামলা চালায় এবং আমাদেরকে মারধর করে। তাৎক্ষনিক ৯৯৯ তে কল দিয়ে জীবন রক্ষা পেলেও রক্ষা পায়নি মায়ের কবরসহ পারিবারিক কবরস্থান। থানা পুলিশ আসার আগেই প্রতিপক্ষরা আমার মায়ের কবরের উপরে একখানা টিনের ঘর স্থাপন করে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরও অভিযোগ করেন, গত ৭ অক্টোবর প্রতিপক্ষরা পুনরায় আমার বসত বাড়িতে হামলা চালালে আমি ঝালকাঠি বিজ্ঞ আদালতের স্বরনাপন্ন হলে আদালত শান্তি শৃংখলা রক্ষার জন্য অফিসার ইনচার্জ রাজাপুর থানাকে ১১ অক্টোবর আদেশ দেন। এ আদেশ অমান্য করে প্রতিপক্ষরা পূনরায় গত ২৩ অক্টোবর পূনরায় হামলা চালিয়ে আমার ঘরবাড়ি ভাংচুর করে মালামাল লুট করে ঘন্টাখানেক তান্ডবলীলা চালিয়ে মায়ের কবরের উপরে পূনরায় আরো একটি ঘর স্থাপন করে এবং চাঁদাদাবী করে জীবন নাশের হুমকি প্রদান এবং থানার পেন্ডিং মামলায় ঢুকিয়ে বাড়ি ছাড়া করবে বলে শাসিয়ে যায়। এসময় প্রত্যক্ষদর্শীরা কেউ সাক্ষী দিলে তাদেরকেও খুন জখমের হুমকি দিয়ে চলে যায় বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন।

এ বিষয়ে ক্ষতিগ্রস্থ দম্পতি যাতে এই সন্ত্রাসীদের হাত থেকে রক্ষা পায় তার জন্য প্রধানমন্ত্রী সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *