ঝালকাঠিতে শিশু হত্যা মামলার সব আসামি খালাস

আবু সায়েম আকন, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ
ঝালকাঠির দায়রা জজ আদালত আজ রাজাপুরের ১০ বছরের শিশু মোহাম্মদ আলী হত্যা মামলার সকল আসামিকে খালাস দিয়েছে।

ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. মাসুদুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

আলোচিত এ হত্যা মামলার রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অতিরিক্ত সরকারি কৌসুলি আ.স.ম মোস্তাফিজুর রহমান মনু।

মামলা থেকে খালাসপ্রাপ্তরা হইলো, রাজাপুর উপজেলাধীন ছোট কৈবর্তখালী গ্রামের আবদুর রশীদ হাওলাদার (৬০), তাঁর ছেলে মামুন হাওলাদার ২৫), মাসুদ হাওলাদার (২৮), মোহাম্মদ নুরু (৩৫), শাহীন হাওলাদার (২২)।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, রাজাপুরের সদর ইউনিয়নের ছোট কৈবর্তখালী গ্রামের আবদুল মান্নান হাওলাদার এবং তার চাচাতো ভাই চাচাতো ভাই আবদুর রশীদ হাওলাদারের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল দীর্ঘদিন ধরে। আবদুল মান্নানের ছোট ছেলে মোহাম্মদ আলী তাঁর বোনের সঙ্গে পাশের গ্রামে নানা বাড়ি বেড়াতে যাওয়ার জন্য রওয়ানা হয় ২০১১ সালের ২৯ আগস্ট বিকেলে। মাঝপথে বোনকে একাই নানা বাড়ি যেতে বলে মোহাম্মদ আলী নিজেদের বাড়ি ফিরে যাওয়ার করে বলে ফিরে আসে। কিন্তু সে আর বাড়িতে ফিরেনি। বাড়িতে না ফেরায় অনেক খোঁজাখুজির পরে বাড়ির পাশের একটি পুকুর থেকে তাঁর ভাসমান লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

উক্ত ঘটনায় মোহাম্মদ আলীর বাবা আবদুল মান্নান হাওলাদার বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের আসামি করে রাজাপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলাটি পরবর্তীতে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ৫ সেপ্টেম্বর আদালতে ৬ জনের সংশ্লিষ্টতা পেয়ে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

অভিযোগপত্রে সিআইডি’র এসআই মং চেং লা উল্লেখ করেন, ইফতার খাওয়ানোর কথা বলে আসামি আবদুর রশীদের ছেলে মামুন হাওলাদার তাঁর দোকানে নিয়ে যায় মোহাম্মদ আলীকে। রোজাদার ওই শিশুকে সন্ধ্যায় গলাটিপে হত্যা করে লাশ বাড়ির পেছনের একটি পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *