হাবিপ্রবির মেডিকেল সেন্টারে চলছে করোনার টিকাদান কর্মসূচি 

আব্দুল কাইয়ুম,হাবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ
শতভাগ টিকার আওতায় আনতে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়র (হাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের  বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে করোনার ভ্যাকসিন প্রদান শুরু হয়েছে।বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক -শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের টিকাদান প্রক্রিয়া সহজ করতে এ অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন করা হয়। সোমবার (১৮ অক্টোবর)  সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড.এম কামরুজ্জামান এ টিকাকেন্দ্রের উদ্বোধন করেন।

হাবিপ্রবি মেডিকেল সেন্টারের চীফ মেডিকেল অফিসার ড.মোঃ নজরুল ইসলাম দৈনিক অধিকারকে জানান, সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত টিকা দেওয়া হবে।যারা সুরক্ষা অ্যাপে রেজিষ্ট্রেশন করেছে কিন্তু এখনো মেসেজ পায় নি তাদেরকে টিকা (১ম) ডোজ টিকা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেয়া হচ্ছে।টিকা পেতে রেজিষ্ট্রেশন কপি জমা দিতে হবে।অস্থায়ী এ ক্যাম্পে শুধু সিনোফার্মের ভেরোসেল টিকা দেয়া হচ্ছে।

ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড.ইমরান পারভেজ বলেন,মাননীয় উপাচার্যের একান্ত প্রচেষ্টায় আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে শিক্ষার্থীদের টিকা দিতে পেরেছি।প্রথম দিন(সোমবার) ১১০ জন ও ২য় দিন (মঙ্গলবার) ৭৭ জন মেডিকেল সেন্টার থেকে টিকা নিয়েছে।প্রথম দিকে শুধুমাত্র সুরক্ষা অ্যাপে রেজিষ্ট্রেশন করে এখনো টিকা দিতে পারেনি তাদেরকে ১ম ডোজ দেয়া হবে।সকল শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ১ম ডোজ দেয়া সম্পন্ন হলে আমরা ২য় ডোজ টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করবো।

তিনি বলেন,যাদের জাতীয় পরিচয় পত্র নেই তারা আপাতত টিকা পাবে না। জন্মনিবন্ধন নাম্বার দিয়ে যারা ইউনিভ্যাক লিংকে আবেদন করেছিলো তাদের তালিকা আমরা পেয়েছি।আবেদনকারীরা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কিনা তা যাচাই করে খুব দ্রুতই স্বাস্থ্যঅধিদপ্তরে তালিকা পাঠাবো।এরপরে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টার থেকেই টিকা নিতে পারবে।

বিদেশি শিক্ষার্থীদের টিকা প্রদানের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন,স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাথে আমরা নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। আমরা বিদেশি শিক্ষার্থীদের সকল ডকুমেন্টস তাদেরকে দিয়েছি।আশা করছি আগামী সপ্তাহেই বিদেশী শিক্ষার্থীদের আমরা টিকার আওতায় আনতে পারবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *