জাফলংয়ে বালুখেকো ফয়জুলের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানীর মামলা

মুশফাকুর রহমান, সিলেট জেলা প্রতিনিধিঃ
সিলেটের জাফলংয়ের বালু ও পাথরখেকো সিন্ডিকেটের প্রধান ফয়জুলের বিরুদ্ধে লুটপাট ও শ্লীলতাহানীর অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় ফয়জুল ছাড়া আরো ৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সিলেটের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৫ম আদালতে এই মামলা দায়ের করেন জাফলং নয়াবস্তি গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল হেকিমের স্ত্রী সাহেনা বেগম।

মামলায় আসামিরা হচ্ছে- নয়াবস্তি গ্রামের মকবুল আলীর ছেলে আজগর হোসেন, আকবর হোসেন, সাবু মিয়ার ছেলে আব্দুল করিম, মৃত নুরু মিয়ার ছেলে মরম আলী ও শফিক মিয়ার ছেলে মধু মিয়া। বাদিপক্ষের আইনজীবি এডভোকেট আব্দুল্লাহ আল মামুন জানিয়েছেন- আদালত সাহেনা বেগমের মামলাটি আমলে নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য গোয়াইনঘাট থানা পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার এজাহারে সাহেনা বেগম উল্লেখ করেন- গত সোমবার নয়াবস্তি গ্রামে পিয়াইন নদীর তীরবর্তী স্থানে তার ছেলে শাহীন আহমদকে পেয়ে পাথরখেকো চক্রের প্রধান ফয়জুল ওরপে বিশ্বনাথী ফয়জুল মারধোর করে। এ সময় শাহীনের মোটরসাইকেলও ভাংচুর করা হয়। 

এ ঘটনায় সাহেনা বেগম থানায় অভিযোগ দায়ের করলে ফয়জুল ও তার সহযোগীরা মঙ্গলবার রাতে সশস্ত্র অবস্থায় সাহেনা বেগমের ঘরে হামলা চালায়। এ সময় তারা অশ্লীল গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে সাহেনা বেগম অশ্লীল কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করলে ফয়জুল সহ আসামিরা দা দিয়ে ঘরের টিনের বেড়া কেটে ভেতরে প্রবেশ করে। আসবাবপত্র ভাংচুর করে ৪০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন করে ঘরে থাকা ৭৮ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে তিনি আদালতের কাছে আর্জি জানান।

সাহেনা বেগম জানিয়েছেন- প্রথমে থানায় অভিযোগ এরপর আদালতে মামলা দায়েরের পর থেকে তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। ফয়জুল ও তার সহযোগীরা এলাকায় সশস্ত্র মহড়া দিচ্ছে বলে জানান তিনি। 

এ ব্যাপারে তিনি গোয়াইনঘাট থানা পুলিশের সহযোগিতা কামনা করেছেন।  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *