ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সুহিল পুরে লাঠি খেলা দেখতে সকল বয়সী লোকজনের ভিড়

আকাশ সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা সুহিলপুর মীরহাটি অনুষ্ঠিত হলো ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা। লাঠি খেলার হারিয়ে যাওয়া খেলা দেখতে সব বয়সী মানুষ ভিড় জমান।

একটা সময় লাঠি খেলা ছিল গ্রাম বাংলার মানুষের কাছে পরিচিত খেলা। এটি ছিল মানুষের বিনোদনের উৎস। বৈশাখী মেলা, বিয়ে সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মানুষকে আনন্দ দিতে এই খেলার আয়োজন করা হতো। আসা সাধারণ মানুষকে আনন্দ দিতে বুধবার বিকেলে আয়োজন করা হয় লাঠি খেলার। কাঁসার শব্দে চারপাশে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। ঢোলের তালে নেচে নেচে অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করেন লাঠিয়ালরা। খেলোয়াড়রা একে অপরের সঙ্গে লাঠিযুদ্ধে লিপ্ত হন। লাঠি দিয়ে অন্যের আক্রমণ ঠেকিয়ে দেন। বিভিন্ন কসরত দেখিয়ে উপস্থিত সবাইকে তাক লাগিয়ে দেয়। ক্ষুদে লাঠিয়ালের কসরত শেষ হতেই আবির্ভূত হন প্রবীণ লাঠিয়ালরা। দল বেঁধে আগত দর্শকদের সালাম বিনিময় করেন। দর্শকরা করতালি দিয়ে খেলোয়াড়দের উৎসাহ যোগান।

আখিতাঁরা লাঠিয়াল মেহেদী আক্তার, অমিত খান জানান, পুরস্কার বা টাকার জন্য তারা লাঠি খেলেন না। ঐতিহ্যবাহী খেলাটি ধরে রাখতে ও দর্শকদের আনন্দ দিতে তারা মাঠে নামেন। যে যা দেয়, তা আনন্দে গ্রহণ করেন। ভিডিও গেমের প্রভাবে শিশুরা আজ ঘরে বন্দি। লাঠি খেলাসহ গ্রাম্য খেলাকে টিকিয়ে রাখতে ও আগামী প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে মাঝে মধ্যে এর আয়োজন করা উচিৎ বলে মনে করেন তারা।

সুহিলপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সভাপতি দুলাল খান বলেন লাঠি খেলা ঐতিহ্যবাহী খেলা। তাদের বিনোদন দিতে ও ঐতিহ্যবাহী খেলা টিকিয়ে রাখতেই এর আয়োজন করা হয়েছে। উক্ত খেলায় বিশেষ অথিতি হিসাবে ছিলেন আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ ভুইয়া, শফিকুর ইসলাম সাংবাদিক এহসানুল হক রিপন। মীরহাটি যুবকদের মাধ্যমে লাটি খেলা আয়োজন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *