রক্তদান করে সর্বোৎকৃষ্ট সেবা দিয়ে যাচ্ছেন চরভদ্রাসনের দুই কৃতি সন্তান

মাহবুব পিয়াল, ফরিদপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
“পরের কারনে স্বার্থ দিয়া বলি এ মন প্রান সকলই দাও তারচেয়ে সুখ কোথাও কি আছে আপনার কথা ভুলিয়া যাও”। ফরিদপুরের চরভদ্রাসনের গাজিরটেক ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মানবতার সেবক রক্ত মানব তালুকদার সানাউল্লাহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভ’গোল ও পরিবেশবিজ্ঞানে স্নাতকত্তর বর্তমানে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর রাজবাড়ি সদর সার্কেল এর উপ-পরিদর্শক হিসেবে কর্মরত আছেন।

তার অনুপ্রেরনায় অনুপ্রানিত হয়ে ২য় রক্ত মানব উপাধি ধারন করেছেন গাজিরটেকের আরেক সন্তান মোস্তফা কামাল। তিনি বাংলাদেশ ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় কুষ্টিয়া থেকে লোকপ্রশাসন বিষয়ে স্নাতকত্তর বর্তমানে তিনি চর হরিরামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

মানব দেহের চালিকা শক্তির মধ্যে রক্ত এমন একটি উপাদান যা ছাড়া জীবন ধারন ও মানব দেহ সচল রাখা সম্ভব নয়। বর্তমান সময়ে দেখা যায় রক্তের অভাবে অনেক জীবন ঝরে যায় মুমূর্ষু রোগী যখন রক্তের জন্য ছটফট করে তখন রোগীর অপনজনরা দিশেহারা হয়েপরে। নিজেদের রক্তের গ্রুপ না মেলায় চরম অসহায় হয়ে পরতে হয়।টাকা দিয়েও এমন সময় রক্ত পাওয়া সম্ভব হয়না। মানুষের এমন চরম সংকট ময় মুহূর্তে মানুষকে নিজের শরীরের রক্ত দিয়ে জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসেন সমাজের নিবেদিত প্রান যারা মানুষ নামক প্রাণীকুলের মধ্য থেকে প্রকৃত মানুষে পরিনত হতে পেরেছেন সেই রক্ত মানবরা, নিজের কাজ ফেলে দুনিয়ার স্বার্থ ত্যাগ করে নিজের শরীর থেকে রক্ত দেন। নিজেদের রক্ত না মিললে গ্রুপের মধ্যে শেয়ার করে রক্ত সংগ্রহ করেন। গ্রুপে না মিললে অন্য ডোনার দের কাছ থেকে সংগ্রহ করে দেন এর বিনিময় এরা কোন টাকা নেন না বরং নিজের কষ্টে উপার্জিত অর্থ ব্যয় করে মানুষের পাশে দাড়ান।

তালুকদার সানাউল্লাহ ও মোস্তফা কামাল কে দেখে চরভদ্রাসনের আরো অনেক নিবেদিত প্রান অনুপ্রানিত হয়ে নিজের নামের আগে রক্ত মানব উপাধি যোগ করেছেন তাদের মধ্যে তাপস মল্লিক, মিতল আহম্মেদ সবুজ, রুবেল ,মোঃ শহিদুল ইসলাম ,আরিয়ান খান রনি, মাহফিজুর রহমান মুন্না, তরিকুল ইসলাম, শাহানাজ পারভীন, ফারজানা মিতু, খাদিজাতুল কুবরা, তনিকা, আমীর ফয়সাল, হাবিবুর রহমান, জোবায়ের রহমান অর্পি সহ আরো অনেকে।

তালুকদার সানাউল্লাহ বলেন, রক্ত দিন জীবন বাঁচান এ শ্লোগানকে সামনে রেখে নশ্বর এ পৃথিবিতে কারও জীবন ও সংসার বাঁচাতে পারা কারও মুখের নয় বুকের হাসি ফুটাতে পারা সৃষ্টির সেবা করতে পারা এইর্ রত থেকেই আমি রক্ত মানব হিসেবে পরিচয় পেতে চাই ।
মোস্তফা কামাল বলেন “ তুমি যখন এসেছিলে ভবে কেদেছিলে তুমি হেসে ছিল সবে এমন ভাবে জীবন কর হে গঠন মরনে কাদিবে তুমি হাসিবে ভ’বন “এই ব্রত থেকেই আমার রক্ত মানব হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলা । যাতে আমাদের দেখে আরো অনেকে এ মহৎ কাজে নিজেকে সোপে দিলে এটাই হবে আমার স্বার্থকতা।

আমি আশা রাখবো সবাই এভাবে মানুষের পাশে থেকে মানব সেবা করবে খুব শীঘ্রই আমরা একটি ওয়েবসাইট চালু করবো এখানে যারা রক্ত দেন বা রক্ত মানব হতে আগ্রহী তাদের তালিকা থাকবে যাতে দেশের যে কোন প্রান্ত থেকে অসহায় মুমূর্ষু রোগী তারা সেবা পেতে পারেন। যারা সে¦চ্ছায় রক্ত দিবেন তাদেরকে পূরস্কৃত করা হবে।

সানাউল্লাহ ও মোস্তফা কামাল এর কার্যক্রম কে মানবতা উজ্জল দৃষ্টান্ত হিসেবে উল্লেখ করে চরভদ্রাসনের মানবাধিকার বাস্ত বায়ন সংস্থার সাধ্ারন সম্পাদক লিয়াকত আলী লাভলু বলেন, বর্তমান সময়ে মানুষের কল্যানে কাজ করার মত লোকের বড়ই অভাব তার পরে আবার নিজের শরীরের রক্ত দেওয়ার মত কাজ আমি মনেকরি এরা আমাদের চরভদ্রাসনের গর্ব ও অংহকার ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *