নাটোরের বাগাতিপাড়ায় গৃহবধুর আত্নহত্যা

মোঃ রাশেদুল আলম রুপক নাটোর জেলা প্রতিনিধিঃ 
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় প্রবাসী স্বামীর ওপর অভিমান করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঘরের তীরের সাথে ঝুলে তানিয়া বেগম (২০) নামের এক গৃহবধূর আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে।

গতকাল রোববার বিকাল সাড়ে ৫ টায় পুলিশ তানিয়ার শয়ন ঘর থেকে মরদেহ উদ্ধার করেছে। তানিয়া বেগম উপজেলার বাগাতিপাড়া পৌরসভার টুনিপাড়া মহল্লর তরিম উদ্দিনের মেয়ে।

মরদেহ উদ্ধারকারী পুলিশের উপ-পরিদর্শক মোস্তাক আহম্মেদ ও স্থানীয় সূত্র জানান, পাঁচ-ছয় মাস পূর্বে পার্শ্ববর্তী লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া গ্রামের জুয়েল রানার সাথে তানিয়া বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্যতা ছিল। স্বামী বিদেশে গেলে তানিয়া তার বাবার বাড়ি টুনিপাড়াতে এসে থাকতো। জামাতার সঙ্গে শ্বশুরবাড়ির তেমন সম্পর্ক না থাকায় কোন দেশে থাকেন তা শুশুরবাড়ির কেউ জানতেন না। ঘটনার দিন রোববার সকালে বাড়িতে কেউ ছিল না। বাজার থেকে দুপুরের দিকে ফিরে তানিয়ার বাবা তরিম উদ্দিন তানিয়ার শয়ন ঘরে ঘরের তীরের সাথে নিজের ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলন্ত মরদহ দেখতে পান। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে বাগাতিপাড়া মডেল থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, রোববার রাতে অথবা সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ নাটোর সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হবে। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, মোবাইল ফোনে প্রবাসীর স্বামীর সাথে কথা বলে মনোমালিন্যতার জেরে সে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *