ক্যান্সারের কাছে হেরে গেলেন হাবিপ্রবি শিক্ষার্থী 

আব্দুল কাইয়ুম, হাবিপ্রবি:
হেপাটোবিলিয়ারি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ফিরোজ মেহবুব নামে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ১৫তম ব্যাচের গণিত বিভাগের এক শিক্ষার্থী।

বুধবার (৬ অক্টোবর) রাত ৮টা ২০ মিনিটে রংপুরের প্রাইম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ফিরোজ মেহবুব রংপুর জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার হাড়িয়াড় কুটি পাতাইটাড়ী গ্রামের রফিকুল ইসলামের (মন্টু) ছেলে।

এর আগে ফিরোজ মেহবুব সিরাজগঞ্জের খাজা ইউনুস আলী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন। তখন বিভিন্ন গণমাধ্যমে ‘বাঁচতে চায় ক্যান্সারে আক্রান্ত হাবিপ্রবি শিক্ষার্থী ফিরোজ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়েছিল। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ অনেকেই ফিরোজ মেহবুবকে সহযোগিতা করতে এগিয়ে আসে। কিন্তু শারীরিক অবস্থার ক্রমেই অবনতি হলে তাকে খাজা ইউনুস আলী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে রংপুর প্রাইম হাসপাতালে নেওয়া হয়।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ফিরোজের ক্যান্সার লিভার থেকে পিত্তথলিতে ছড়িয়ে পড়েছিল। ফিরোজকে বাঁচাতে দ্রুত ভারতে নেওয়ারও পরামর্শও দিয়েছিলেন চিকিৎসকরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি।

এ দিকে মেধাবী শিক্ষার্থী ফিরোজ মেহবুবের অকাল মৃত্যুতে তার পরিবার, সহপাঠী ও শিক্ষকদের মাঝে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। সহপাঠীদের ভাষ্য, ফিরোজ মেহবুব ক্যাম্পাসে খুবই প্রাণচঞ্চল ও হাসি-খুশি ছিল। সবার সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতো। ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ফিরোজ মারা যাওয়ায় তারা সকলেই শোকাহত। তার জন্য দোয়া চেয়েছেন তার স্বজন ও সহপাঠীরা।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে ফিরোজের জানাজা বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৯টায় তার নিজ গ্রামের বাড়ি রংপুর জেলার তারাগঞ্জ উপজেলার হাড়িয়াড় কুটি পাতাইটাড়ী গ্রামে সম্পন্ন হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *